আগামী ৯ই ডিসেম্বর সৌরভ-শাহের ভাগ্য নির্ধারণ

0

আগামী ৯ই ডিসেম্বর ভাগ্য নির্ধারণ বোর্ড সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও জয় শাহদের। বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট পদে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও সচিব পদে অমিত শাহ পুত্র জয় শাহের মেয়াদ বৃদ্ধি হবে কিনা তা ঠিক করবে দেশের শীর্ষ আদালত। সৌরভ এবং জয় শাহের মেয়াদ যাতে ২০২৫ পর্যন্ত বাড়ানো হয় সেই আবেদন জানিয়ে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দাখিল করা হয় বোর্ডের তরফে । ফলে সৌরভ ও জয় শাহের ভাগ্য কি নির্ধারণ হয় সেদিকেই তাকিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট মহল।

দীর্ঘ দিন ধরে কয়েক জন প্রশাসকের ক্ষমতা ধরে রাখার জন্য লোধা কমিটি নয়া আইন কার্যকর করে। আইন অনুযায়ী কোনও প্রশাসক ৬ বছরের বেশি একটানা পদে থাকতে পারবে না। তাদের ৩ বছরের জন্য কুলিং অফে যেতে হবে। তারপর তারা পুনরায় প্রশাসক হতে পারবেন। ইতিমধ্যেই প্রশাসক হিসেবে নিজের ৬ বছর পূর্ণ করে ফেলেছেন সচিব জয় শাহ। গত ২৭ জুলাই বোর্ডের প্রশাসক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ৬ বছর পূর্ণ হয়েছে । কারণ, বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে সিএবি সচিব এবং প্রেসিডেন্ট হিসেবে পাঁচ বছরের বেশি সময় কাটিয়েছেন সৌরভ। বোর্ড প্রেসিডেন্ট হিসেবে আরও এক বছর কাটানোর ফলে প্রশাসক সৌরভে টানা ৬ বছরের মেয়াদ পূর্ণ হয়েছে । অন্যদিকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর ছেলে জয় শাহও গুজরাট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন ও বিসিসিআই পদ মিলিয়ে ৬ বছর মেয়াদ পূর্ণ করেছেন। ফলে নিয়ম অনুযায়ী কুলিং অফে যেতেই হবে তাদের।

২২ জুলাই সুপ্রিম কোর্টে দেশের প্রধান বিচারপতি শরদ অরবিন্দ বোরদে ও বিচারপতি এল নাগেশ্বর রাওয়ের ডিভিশন বেঞ্চ বোর্ডের আবেদন গ্রহণ করে। তারপর থেকে দেশের শীর্ষ আদালতে ঝুলে রয়েছে সৌরভ গাঙ্গুলি আর জয় শাহের ভবিষ্যত্‍। মেয়াদ বৃদ্ধি নাকি ছাড়তে হবে পদ?

বিচারপতি নাগেশ্বর রাওয়ের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ জানিয়েছেন, বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি আর সচিব জয় শাহের মেয়াদ বৃদ্ধি সংক্রান্ত মামলার চূড়ান্ত শুনানি হবে ৯ ডিসেম্বর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here