আজ থেকে ভারতে আসা বিদেশি যাত্রীদের জন্য কোয়ারেন্টাইন নয়, মানতে হবে নতুন নির্দেশিকা

0

সম্পূর্ণরূপে ভ্যাকসিনপ্রাপ্ত আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের বিমানবন্দর ছেড়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে এবং আজ (সোমবার) থেকে তাঁদের হোম কোয়ারেন্টাইনের প্রয়োজন হবে না’, এমনটাই এদিন জানিয়েছে ভারত সরকারের সংশোধিত নির্দেশিকা।

আজ থেকে ভারতে আসা বিদেশি যাত্রীদের জন্য কোয়ারেন্টাইন নয়, মানতে হবে নতুন নির্দেশিকা

Read More-ভোটমুখী উত্তরপ্রদেশে ৯টি মেডিকেল কলেজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী মোদীর

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, বিদেশ থেকে ভারতে আসা যাত্রীদের জন্য কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক নয়। আজ থেকে বিদেশি যাত্রীদের জন্য উঠে যাচ্ছে কোয়ারেন্টাইন পর্ব। যাঁদের পূর্ণ ভ্যাকসিনেশন হয়েছে, তাঁদের কোয়ারেন্টাইনে থাকার প্রয়োজন নেই। বিমানবন্দরে তাঁদের রাপিড টেস্ট করা হবে না বলে জানানো হয়েছে নতুন নির্দেশিকায়।বিদেশি যাত্রীদের ক্ষেত্রে কোয়ারেন্টাইন পর্ব বাধ্যতামূলক না হলেও তাঁদের নেগেটিভ আরটিপিসিআর রিপোর্ট দেখতে হবে।

Read More-‘উত্তরবঙ্গের ভাগাভাগি দেখতে চাই না, মানবিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সমাজ চাই’: মমতা

এছাড়াও ভারতে আসা যাত্রীদের জন্য আরও বেশ কিছু নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যার মধ্যে বলা হয়েছে, যাঁদের শুধুমাত্র ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেওয়া থাকবে, তাঁদের ক্ষেত্রে সাত দিনের হোম কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক। অষ্টম দিনে তাঁদের কোভিড টেস্ট করা হবে। টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এলে, তাঁরা হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরোতে পারবেন।

Read More-রিক্সা চালিয়ে দিনযাপন করা ব্যক্তির বকেয়া আয়করের পরিমাণ ৩.৪৭ কোটি টাকা! নোটিশ ধরাল আয়কর দফতর

এই নতুন নির্দেশিকাগুলি বিমান যাত্রীদের সঙ্গে যাঁরা জলপথে ভ্রমণ করবেন, তাঁদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য। সোমবার থেকে পরবর্তী নির্দেশিকা না আসা পর্যন্ত এই নিয়মগুলি বলবত্‍ থাকবে।

বিমানে বা জলপথে যাত্রা শুরুর আগে এয়ারলাইন্স বা মেরিন ওয়েবসাইটে যাত্রীদের কোভিড নেগেটিভের একটি ফর্ম জমা করতে হবে। করোনা প্রভাবিত দেশগুলিকে বাদে অন্যান্য দেশ থেকে আসা আসা যাত্রীদের বিমানবন্দর ছেড়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে। কিন্তু আগামী ১৪ দিন তাঁদের নিজেদের স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখতে হবে। এই নিয়ম সেই সব দেশ থেকে আসা যাত্রীদের জন্য প্রযোজ্য, তবে যাঁরা শুধুমাত্র ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (হু)-র অনুমোদিত ভ্যাকসিন নিয়েছেন। কিন্তু তারপরেও যদি কেউ করোনায় আক্রান্ত হন, তাহলে নিকটবর্তী স্বাস্থ্যকেন্দ্রে জানাতে হবে এবং জাতীয় হেল্প লাইন নম্বরে যোগাযোগ করতে হবে।

Previous articleভোটমুখী উত্তরপ্রদেশে ৯টি মেডিকেল কলেজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী মোদীর
Next articleএবার ভোজ্য তেলের দাম নিয়ন্ত্রণের জন্য রাজ্যগুলির সঙ্গে বৈঠকে বসতে চলেছে কেন্দ্র

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here