করোনা অতিমারীর কারণে আটকে থাকা ৪ শতাংশ DA খুব শীঘ্রই পেতে চলেছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীরা

0

করোনা অতিমারীর কারণে ২০২০ সালে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের কোনও রকম DA বাড়েনি। যদিও সেই আটকে থাকা ৪ শতাংশ DA খুব শীঘ্রই পেতে চলেছেন কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীরা।

এই পদক্ষেপের ফলে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রায় ৫০ লক্ষ কর্মচারী এবং ৬০ লক্ষেরও বেশি পেনশনভোগী উপকৃত হবেন বলে আশা করা হচ্ছে। সপ্তম কেন্দ্রীয় বেতন কমিশনের (7th Pay Commission) সুপারিশের ভিত্তিতে DA বাড়তে চলেছে। সে ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মচারী এবং পেনশনভোগীরা মোট ২১ শতাংশ DA পাবেন। এর ফলে কেন্দ্রীয় সরকারের ৪৮ লক্ষাধিক কর্মচারী এবং প্রায় ৬৫.২৬ লক্ষ পেনশনভোগীরা উপকৃত হবেন।

২০২০ সালের এপ্রিলে করোনা মহামারীর ফলে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সঙ্কটের কারণে ৪ শতাংশ DA বৃদ্ধি স্থগিত করা হয়েছিল। কেন্দ্র ২০২১ সালের জুলাই পর্যন্ত DA বৃদ্ধি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি বেশ কয়েকটি প্রতিবেদনে ইঙ্গিত মিলেছে যে, সরকার জানুয়ারি, ২০২১ থেকে DA বৃদ্ধি করতে পারে। তবে জানুয়ারিতে DA বাড়ানো না হলেও জুলাইয়ে সপ্তম কেন্দ্রীয় বেতন কমিশনের সুপারিশের ভিত্তিতে DA-সহ বেতন পেতে পারেন দেশের কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীরা।

এর আগে কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও শ্রমিকদের অ্যাসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সিতারমনকে কেন্দ্রীয় কোষাগারের পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করেছিল এবং বিশেষত মূদ্রাস্ফীতির উচ্চহারের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারি কর্মচারী ও পেনশনভোগীদের যোগ্য হারে DA বৃদ্ধির জন্য তাঁকে অনুরোধ করেছিল। উল্লেখ্য, প্রতি বছর জুলাইয়ে কেন্দ্রীয় কর্মীদের মহার্ঘ ভাতা (ডিএ) বৃদ্ধি করা হয়। কিন্তু এবার এপ্রিলে করোনাভাইরাস মহামারির কারণে সরকার কর্মীদের ডিএ না বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। সরকারী কর্মচারীদের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে বছরে দু’বার ডিএ দেওয়া হয় যা ২০২০-র এপ্রিলের পর থেকে আর বাড়ানো হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here