করোনা আবহে পিছিয়ে গেল রাজ্যের জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষা!‌ হবে অফলাইনে

0

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে পিছিয়ে দেওয়া হল রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস। পরিবর্তিত সূচি অনুযায়ী, আগামী ১৭ জুলাই (শনিবার) পরীক্ষা হবে। রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ডের (WBJEE) তরফে জানানো হযেছে, অফলাইনেই হবে পরীক্ষা। আগামী ১৪ অগস্টের মধ্যে ফল প্রকাশিত হবে। পড়ুয়ারা যাতে ভিন রাজ্যে না যান, সেজন্য এবার ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে শেষ করা হবে তিন দফার কাউন্সেলিং।

এমনিতে এবার ১১ জুলাই রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রাস হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে ছ’দিন পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে পরীক্ষা। কিন্তু ছ’দিনের ব্যবধানে করোনা পরিস্থিতির কতটা উন্নতি হবে? রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, জুলাইয়ের মাঝামাঝি গণপরিবহন ব্যবস্থা স্বাভাবিক হয়ে যাবে মনে করা হচ্ছে। তাই সেই সময় পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

পাশাপাশি উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা যেখানে বাতিল হয়ে গিয়েছে, সেখানে অফলাইনে জয়েন্ট পরীক্ষা কেন নেওয়া হচ্ছে, সেই ব্যাখ্যাও দিয়েছে রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স বোর্ড। বুধবার বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, উচ্চ মাধ্যমিক এবং রাজ্যে জয়েন্টের পরীক্ষার্থীর সংখ্যার মধ্যে আকাশ-পাতাল পার্থক্য আছে। যেখানে ১০ লাখের মতো পড়ুয়া উচ্চ মাধ্যমিক দেওয়ার কথা ছিল, সেখানে রাজ্য জয়েন্টে বসবেন ৯২,৬৯৫ জন। তাছাড়া অল ইন্ডিয়া কাউন্সিল ফর টেকনিকাল এডুকেশনের (AICTE) নির্দেশিকা মোতাবেক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভরতির জন্য যে কোনও পরীক্ষায় বসতেই হবে। সেই বিষয়টি মাথায় রেখে ২৭৪টি কেন্দ্র পরীক্ষা নেবে বোর্ড। মেনে চলা হবে করোনা বিধি। বজায় রাখা হবে সামাজিক দূরত্ব। সেজন্য প্রতি বেঞ্চে একজন প্রার্থী বসবেন। বড় বেঞ্চ হলে সর্বাধিক দু’জন বসতে পারবেন। তবে গত বছর সর্বভারতীয় জয়েন্টের সময় বহু পরীক্ষার্থীর দূরে কেন্দ্র পড়েছিল। ফলে তাঁরা প্রবল সমস্যার মধ্যে পড়েছিলেন। যদিও রাজ্য জয়েন্ট বোর্ডের তরফে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে, বাড়ির কাছেই পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্র পড়বে। পরীক্ষার্থীদের যাতায়াতে কোনওরকম সমস্যা এড়াতে এবার শনিবার জয়েন্ট হচ্ছে। অন্যবার সাধারণ রবিবার হয়। সেক্ষেত্রে মেট্রো, বাসের সংখ্যা কম থাকে। তার জেরে পরীক্ষার্থীদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here