করোনা টিকার জন্য নাম নথিভুক্ত করতে হবে CO-WIN অ্যাপে, দেখে নিন বিস্তারিত

0
টিকা সংক্রান্ত সমস্ত কাজই হবে ডিজিটালি। সেই উদ্দেশ্যে বানানো হয়েছে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম। তৈরি হয়েছে অ্যাপও। নয়া অ্যাপের নাম রাখা হয়েছে CO_WIN। কেউ টিকা নিতে চাইলে নাম নথিভুক্ত করতে হবে ওই অ্যাপে।

যে অ্যাপের মাধ্যমে পুরো টিকাকরণ প্রক্রিয়ার উপর নজর রাখা হবে। টিকা নেওয়ার জন্য সেই অ্যাপে স্বেচ্ছায় নথিভুক্তিকরণও (সেলফ রেজিস্ট্রেশন) করা যাবে। বিনামূল্যেই সেই অ্যাপ ডাউনলোড করা যাবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ।

একনজরে দেখে নিন সেই অ্যাপ সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য –

১) যাঁরা টিকা প্রদানের প্রক্রিয়ায় যুক্ত থাকবেন, তাঁরা প্রত্যেকে এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। যিনি টিকা প্রদান করবেন, যাঁরা টিকা পাবেন – তাঁরা সকলে এই অ্যাপের সুবিধা পাবেন।

২) প্রথম দফায় স্বাস্থ্যকর্মী-সহ সকল প্রথমসারির করোনা-যোদ্ধাকে টিকা প্রদান করা হবে। যাঁরা জরুরি কাজে নিযুক্ত আছেন, তাঁরা দ্বিতীয় দফায় টিকা পাবেন। তাঁদের যাবতীয় তথ্য জোগাড়ের কাজ শুরু করেছে রাজ্য সরকারগুলি। তৃতীয় দফায় কো-মর্বিডিটি থাকা মানুষরা টিকা পাবেন। তখন থেকেই সেই স্বেচ্ছায় নথিভুক্তিকরণ (সেলফ রেজিস্ট্রেশন) শুরু হবে। তা কো-উইন অ্যাপের (Co-WIN app) মাধ্যমে হবে।

৩) কো-উইন অ্যাপে (Co-WIN app) পাঁচটি অংশ (মডিউল) থাকবে – অ্যাডমিনিস্ট্রেটর মডিউল, রেজিস্ট্রেশন মডিউল, ভ্যাক্সিনেশন মডিউল (টিকা প্রদানের মডিউল), বেনেফিশিয়ারি অ্যাকনলেজমেন্ট মডিউল (উপভোক্তাদের জন্য মডিউল) এবং রিপোর্ট মডিউল। রিপোর্ট অনুয়াযী, প্রতিবার টিকা প্রদানের সময় কমপক্ষে ৩০ মিনিট সময় লাগবে। প্রতিটি সেশনে মাত্র ১০০ জনকে টিকা প্রদান করা হবে।

৫) অ্যাডমিনিস্ট্রেটর মডিউলে থাকবেন অ্যাডমিনিস্ট্রেটরা। যাঁরা টিকা প্রদানের বিষয়ে সেশন পরিচালনা করবেন। সেই মডিউলের মাধ্যমে তাঁরা সেশন তৈরি করতে পারবেন। সংশ্লিষ্ট টিকা প্রদানকারী এবং ম্যানেজারকে সে বিষয়ে জানিয়ে দেওয়া হবে।

৬) রেজিস্ট্রেশন মডিউল হল সেই সব মানুষের জন্য যাঁরা টিকা নেওয়ার জন্য নথিভুক্ত হতে চান। কো-মর্বিডিটির নিয়ে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বা পর্যবেক্ষকরা যে তথ্য দেবেন, তা আপলোড করা হবে।

৭) ভ্যাক্সিনেশন মডিউলে উপভোক্তাদের তথ্য যাচাই করা হবে এবং টিকা প্রদান নিয়ে আপডেট পাঠানো হবে।

৮) উপভোক্তাদের মেসেজ পাঠাবে বেনেফিশিয়ারি অ্যাকনলেজমেন্ট মডিউল। কেউ টিকা পাওয়ার পর সেই মডিউল কিউআর-নির্ভর শংসাপত্র জারি করবে।

৯) কতগুলি টিকা সেশন হয়েছে, তাতে কতজন অংশগ্রহণ করেছেন, কতজন আসেননি – সেই সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট তৈরি করবে রিপোর্ট মডিউল।

১০) কোল্ড-স্টোরেজের তাপমাত্রা কত আছে, তা নিয়ে রিয়েল-টাইম ডেটা মূল সার্ভারে পাঠাবে এই অ্যাপ।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব বলেছেন, ‘প্রত্যেক ভারতীয়কে টিকা প্রদান করা হবে। তার মধ্যে প্রায় এক কোটি স্বাস্থ্যকর্মী, দু’কোটি প্রথমসারির করোনা যোদ্ধা এবং অগ্রাধিকার গোষ্ঠীর ২৭ কোটি মানুষ আছেন।’ একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, কাদের আগে টিকা প্রদান করা হবে, সে বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি। এখন যে ক্রমান্বয়ে টিকা প্রদানের বিষয়টি ভাবনাচিন্তা করা হয়েছে, তা পরে পরিবর্তিতও হতে পারে। টিকা কত পাওয়া যাবে, তার উপর পুরো বিষয়টি নির্ভর করবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here