গড়িয়াহাটে বাড়ি থেকে উদ্ধার প্রৌঢ়-ড্রাইভারের রক্তাক্ত মৃতদেহ, তুমুল চাঞ্চল্য এলাকায়

0
Yellow crime scene do not cross barrier tape in front of defocused background. Horizontal composition with selective focus and copy space.

কলকাতার গড়িয়াহাটের এক বাড়ি থেকে মিলল দুটি মৃতদেহ। গড়িয়াহাটের কাঁকুলিয়া রোডের একটি দোতলা বাড়ি থেকে উদ্ধআর করা হয় গৃহস্বামী এবং তাঁর গাড়ির চালকের গলাকাটা মৃতদেহ। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। দেহ দুটিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় ময়নাতদন্তের জন্য। জানা গিয়েছে, মৃতের নাম সুবীর চাকি। তাঁর দেহ উদ্ধার হয়েছে বাড়ির নিচের ঘর থেকে। অন্যদিকে উপরের ঘর থেকে উদ্ধার হয়েছে তাঁর গাড়ির চালক রবীন মণ্ডলের দেহ। প্রাথমিক অনুমান খুন করা হয় তাঁদের।

গড়িয়াহাটে বাড়ি থেকে উদ্ধার প্রৌঢ়-ড্রাইভারের রক্তাক্ত মৃতদেহ, তুমুল চাঞ্চল্য এলাকায়

Read More-লখিমপুর-কাণ্ডের প্রতিবাদ, পঞ্জাবজুড়ে ‘রেল রোকো’ অভিযানে কৃষকরা

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল ‘৭৮ এ কাকুলিয়া রোডে’র সেই বাড়িতে পৌঁছে যায় লালবাজারের হোমিসাইড বিভাগের গোয়েন্দারা। জানা গিয়েছে, মৃত সুবীর চাকি তাঁর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে নিউটাউনে থাকতেন। পাশাপাশি তিনি দীর্ঘদিন ধরে তাঁর গড়িয়াহাটের কাকুলিয়া রোডের এই বাড়িটি বিক্রি করার চেষ্টায় ছিলেন। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, রবিবার তিনি ও তাঁর গাড়ির চালক গড়িয়াহাটের এই বাড়িটিতে আসেন। বাড়ি বিক্রি সংক্রান্ত কিছু কথা বলার জন্য একাধিক ব্যক্তিও সেদিন গড়িয়াহাটের এই বাড়িতে এসেছিল বলে জানা যায়।

এরপর রাত হয়ে গেলেও তাঁদের খোঁজ না মেলায় খবর যায় গড়িয়াহাট থানায়। পুলিশ এসে ঘরের দরজা খুলতেই গলা কাটা অবস্থায় সুবীর চাকী দেহ নিচের ঘরে পড়ে থাকতে দেখে। তাঁর গাড়ির চালকের গলা কাটা দেহ পড়ে ছিল উপরের ঘরে। রাতেই পুলিশ কুকুর দিয়ে গোটা বাড়িটিতে তল্লাশি চালানো হয়। মৃতের এক আত্মীয় গড়িয়াহাট এলাকায় থাকেন। তদন্তে নেমে তাঁকেও জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। পাশাপাশি ঘটনাস্থল থেকে একাধিক নমুনাও সংগ্রহ করা হয়েছে। ঘরের ভিতর থেকে বাড়ির কোনও দলিল বা কাগজপত্র উদ্ধার করা হয়নি।

 

Previous articleকয়লা পাচার-কাণ্ডে বিনয় মিশ্রের বিরুদ্ধে জারি গ্রেফতারি পরোয়ানা
Next articleডানকুনি টোলপ্লাজায় ধানবাদ-কলকাতাগামী বাস থেকে উদ্ধার প্রচুর অস্ত্র, গ্রেপ্তার ৩

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here