তোলা আদায় করতে Swipe মেশিন হাতে দুয়ারে হাজির তৃণমূল নেতা, উত্তপ্ত জলপাইগুড়ি

0

তোলা আদায় করতে একেবারে সোয়াইপ মেশিন নিয়ে বাসিন্দাদের দুয়ারে হাজির হচ্ছেন তৃণমূল নেতা। এমনটাই অভিযোগ তুলেছেন বাসিন্দারা। এই অভিযোগকে কেন্দ্র করে বুধবার একেবারে তুলকালাম কাণ্ড জলপাইগুড়ির পাহাড়পুর পঞ্চায়েত এলাকায়। একবারে প্রত্যন্ত এলাকাও নয়। জলপাইগুড়ি শহর সংলগ্ন এলাকায় এই ঘটনাকে ঘিরে তীব্র ক্ষোভ দানা বেঁধেছে বাসিন্দাদের মধ্যে। এদিন তাঁরা এলাকায় বিক্ষোভও দেখান। বাসিন্দাদের অভিযোগ, ১০০ দিনের কাজও এলাকায় ঠিকঠাক হয় না। অন্যদিকে যেটুকু কাজ হয় সেখানেও আবার তোলাবাজির অভিযোগ। ১০০ দিনের কাজ দেওয়ার বিনিময়ে তৃণমূল নেতাকে কাটমানি দিতে হচ্ছে। এদিকে সেই কাটমানি নেওয়ার জন্য একেবারে সোয়াইপ মেশিন নিয়ে শ্রমিকদের বাড়িতে চলে যাচ্ছেন সংশ্লিষ্ট নেতা ও তার সঙ্গীরা। অভিযোগ এমনটাই।

ঠিক কী করতেন তিনি? স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, আমাদের বাড়িতে গিয়ে পঞ্চায়েত সদস্য টাকা তুলে নিয়ে চলে আসছে। একেবারে টাকা আদায়ের মেশিন সঙ্গে করে সে নিয়ে যাচ্ছে।  সেই মেশিন দিয়েই সে টাকা তুলে নিচ্ছে। আমাদের কাছ থেকে আঙুলের ছাপ দিয়ে টাকা তুলে নিচ্ছে। আমাদের অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে নিয়েছে। এটা কোনওভাবেই মানা যায় না।

সদর পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ অসীম রায় বলেন,  ‘পঞ্চায়েত সদস্য হিসাবে ওই ব্যক্তি নির্বাচিত ছিলেন। এলাকার লোকজন কাজকর্ম পাচ্ছিলেন না। আমরা কাজ করতে গেলেও সে বাধা দিত। এরপর তার কিছু লোকজন বাড়ি বাড়়ি মেশিন নিয়ে গিয়ে টাকা তুলেছে বলে শুনছি। এটা কোনওমতেই ঠিক নয়। ১০০ দিনের কাজের টাকা পাওয়া বাসিন্দাদের অধিকার।’ তবে গোটা ঘটনায় অভিযুক্ত নেতার প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here