দেশের প্রথম চালকহীন স্বয়ংক্রিয় ট্রেন পরিষেবার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

0

দেশের প্রথম চালকহীন স্বয়ংক্রিয় ট্রেন পরিষেবার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। দিল্লি মেট্রোর ম্যাজেন্ডা লাইনে আপাতত জনকপুরী ওয়েস্ট থেকে বোটানিকাল গার্ডেন পর্যন্ত সেই মেট্রো ছুটবে। এছাড়াও এয়ারপোর্ট এক্সপ্রেস লাইনে ন্যাশনাল কমন মোবিলিটি কার্ড সার্ভিসের সম্পূর্ণ পরিষেবার উদ্বোধন করেন।

সোমবার ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে পরিষেবা উদ্বোধনের পরে মোদী জানান, ১৩০ কোটির বেশি জনসংখ্যার দেশে স্বয়ংক্রিয় মেট্রো পরিষেবার মাইলস্টোন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাঁর কথায়, ‘বিশ্বের আর্থিক এবং কৌশলগত শক্তির গুরুত্বপূর্ণ রাজধানী হল দিল্লি এবং সেই গৌরব ফুটে ওঠা দরকার। আমার বিশ্বাস যে আমরা সবাই একসঙ্গে কাজ করতে থাকব এবং দিল্লির মানুষের জীবন আরও উন্নত করতে পারব এবং শহরকে এগিয়ে নিয়ে যাব।’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিলেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালও।

দিল্লি মেট্রো রেল কর্পোরেশনের দাবি, বিশ্বের মাত্র সাত শতাংশ মেট্রো পরিষেবা স্বয়ংক্রিয়ভাবে চলতে পারে। সোমবার থেকে দিল্লির মেট্রোর মুকুটেও সেই সাফল্যের পালক যোগ হয়েছে। সরকারের দাবি, মানুষের ভুলের যে সম্ভাবনা থাকে, চালকহীন ট্রেনের ফলে তা কমে যাবে। সেজন্য আগামিদিনে অন্যান্য লাইনেও স্বয়ংক্রিয় মেট্রো পরিষেবা চালু করা হবে। ২০২১ সালের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে দিল্লি মেট্রোর পিঙ্ক লাইনেও  সেই পরিষেবা শুরু করা যাবে বলে আশাবাদী সরকার। পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের তরফে জানানো হয়েছে, ২০২২ সালে দিল্লি মেট্রোর সব লাইনে স্বয়ংক্রিয় মেট্রো ছুটবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here