নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে আজ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬ তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন জো বাইডেন

0

নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তারমধ্যে দিয়ে আজ বুধবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬ তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন জো বাইডেন। তাঁর শপথ অনুষ্ঠান ঘিরে নিররাপত্তা বেষ্টনীতে ঘিরে রাখা হয়েছে ওয়াশিংটন।

এবারের শপথ অনুষ্ঠান প্রত্যেকবারের থেকে একবারে আলাদা। কার্যত সেনা ছাউনিতে পরিণত হয়ে গিয়েছে ওয়াশিংটন ডিসি। যেখানে প্রতিবার লক্ষ লক্ষ মানুষ অভিষেক অনুষ্ঠানে আসে, সেখানে এবার ভারী গামবুটের শব্দ। ২৫ হাজার সেনা রয়েছে নিরাপত্তার খাতিরে।

ডেলাওয়্যার থেকে ওয়াশিংটনের বিমানে ওঠার আগে বাইডেন বলেন, ‘আপনাদের পরবর্তী রাষ্ট্রপতি ও কম্যান্ডার ইন চিফ হতে পেরে আমি গর্বিত। আমি সবসময় ডেলাওয়্যারের একজন গর্বিত সন্তান হিসেবেই থাকব।’

বাইডেন বলেন, ‘আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসডেন্ট পদে শপথ গ্রহণের জন্য আমি ওয়াশিংটনে একজন দক্ষিণ এশিয় বংশোদ্ভূত কৃষ্ণাঙ্গ মহিলার সঙ্গে দেখা করব’। প্রসঙ্গত বাইডেনের সঙ্গে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে শপথ নিতে চলেছেন কমলা হ্যারিস। ভারতীয় বংশোদ্ভূত হ্যারিসই প্রথম মহিলা, যিনি আমেরিকার দ্বিতীয় শীর্ষ পদে বসতে চলেছেন।

ডেলাওয়্যারে এদিন বক্তব্য রাখতে গিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েছিলেন বাইডেন। অশ্রুভেজা চোখে বাইডেন বলেন, ‘আমাদের ওয়াশিংটন যাত্রা এখান থেকে শুরু হয়েছিল, এটা অত্যন্ত ব্যক্তিগত অনুভূতি।’ বাইডেন আরও বলেন, ১২ বছর আগে আরও এক কৃষ্ণাঙ্গ মানুষ বারাক ওবামা, ভাইস প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে ট্রেনের প্ল্যাটফর্মে তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছিলেন। আর এখন প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগে তিনি যাচ্ছেন একজন কৃষ্ণাঙ্গ মহিলার সঙ্গে সাক্ষাত করতে।

এদিন আমেরিকার হবু প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। এদিন তিনি ন্যাশানাল মলে যান এবং সেখানে কোভিডে মৃতদের স্মৃতিসৌধটি পরিদর্শন করেন। প্রসঙ্গত অতিমারিতে মৃত্যু হয়েছে ৪ লক্ষেরও বেশি আমেরিকাবাসীর। ডেলাওয়্যারের মানুষের উদ্দেশ্যে জো বলেন, ‘আপনারা আমাদের জন্য কী তা গোটা বাইডেন পরিবারের পক্ষ থেকে কখনই বোঝাতে পারব না। এই রাজ্য প্রয়োজনের সময় আমার বাবা মাকে বাড়ি ও জীবিকা দিয়েছিল। এই রাজ্যই আমার ভাই বোনেদের তৈরি করেছে এবং আমায় বুঝতে শিখিয়েছে যে আমরা যা স্বপ্ন দেখি তা আমার করতে পারি।’

অন্যদিকে নিজের বিদায়ী ভাষণে সদ্য প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি জোনাল্ড ট্রাম্প জানিয়েছেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম রাষ্ট্রপতি হিসেব আমার মেয়ার শেষ করার পাশাপাশি আমরা একসঙ্গে যা অর্জন করেছি তাতে সত্যিই গর্বিত। এই সপ্তাহে একটি নতুন প্রশাসন দায়িত্ব নিতে যাচ্ছে। নতুন প্রশাসন আমেরিকাকে নিরাপদ ও সমৃদ্ধ রাখবে, এই প্রার্থনা করি। আমার শুভকামনা রইল।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here