নেপথ্যে কি বিজেপির চাপ? সরকার সমর্থক সেলিব্রিটিদের টুইট নিয়ে তদন্ত করবে মহারাষ্ট্র সরকার

0

কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে রিহানার মন্তব্যের প্রেক্ষিতে একাধিক ভারতীয় সেলিব্রিটির টুইট খতিয়ে দেখতে এবার তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হবে বলে জানাল মহারাষ্ট্র সরকার।

সোমবার সকালের দিকে মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের সঙ্গে কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধি দল। কংগ্রেস নেতাদের দাবি, কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপির চাপের কারণে রিহানার টুইটের প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন সচিন তেন্ডুলকর, লতা মঙ্গেশকরের মতো তারকারা। দেশমুখ আশ্বাস দিয়েছেন যে ভারতীয় তারকাদের টুইট নিয়ে তদন্ত করে দেখবে মহারাষ্ট্র পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ।

বৈঠকের পর মহারাষ্ট্র প্রদেশ কংগ্রেস কমিটি সচিন সাওয়ান্ত বলেন, ‘বিজেপি যদি আমাদের জাতীয় নায়কদের ভয় দেখায়, তাঁদের তাহলে নিরাপত্তা প্রদান করা উচিত। আমরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখের সঙ্গে দেখা করে সেকথা জানিয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখতে গোয়েন্দা বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছেন উনি।’ পরে সংবাদসংস্থা এএনআইকে তিনি জানান, রিহানার টুইট নিয়ে বিদেশ মন্ত্রকের প্রতিক্রিয়ার পরই একগুচ্ছ টুইট করা হয়। কোনও ব্যক্তি যদি নিজের মত প্রকাশ করেন, তাহলে সেটা ঠিক আছে। কিন্তু একটা সন্দেহ তৈরি হয়েছে যে এটার পিছনে বিজেপির হাত থাকতে পারে।

একইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ার চমকপ্রদ ট্যাগ এবং কমেন্টের প্রলোভনে সেলিব্রিটি-সহ অন্যান্যরা যে ব্যবহার করছেন, তা সঠিক বা দায়িত্ববান নয়। তারপরই টুইটারে সচিন, লতা মঙ্গেশকর, অক্ষয় কুমার, অনিল কুম্বলে, অজয় দেবগণের মতো তারকাদের টুইট ভেসে আসে। রিহানাদের ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক না গলানোর পরামর্শ দেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here