পূর্ব ঘোষিত সাংবাদিক বৈঠক বাতিল করলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী

0

পূর্ব ঘোষিত সাংবাদিক বৈঠক বাতিল করলেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। রবিবার তিনি সাংবাদিক বৈঠক করবেন বলে ঘোষণা করা হয়েছিল। কিন্তু শেষ বেলায় তা বাতিল করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ফলে তাঁকে নিয়ে জল্পনা অব্যহত। তিনি কী করবেন, সেই চর্চা চলছে। গত কয়েকদিন ধরে তাঁকে নিয়ে আলোচনা চলেছে। ইতিমধ্যে তিনি মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দিয়েছেন। তবে তিনি বিধায়ক পদ থেকে এখনও ইস্তফা দেননি। সে ব্য়াপারে কী করবেন, তা নিয়ে আলোচনা চলছে।

১ ডিসেম্বর উত্তর কলকাতার একটি বাড়িতে তাঁর সঙ্গে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বৈঠক হয়। বলা হয়, তাঁর সঙ্গেই শুভেন্দুবাবুর বনিবনা হচ্ছিল না। তাই এই সমস্যা। এই বৈঠকের পৌরোহিত্য ছিলেন তৃণমূলের নেতা, সাংসদ সৌগত রায়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃণমূলের পরামর্শদাতা, ভোট বিশেষজ্ঞ প্রশান্ত কিশোর। প্রশান্ত কিশোরকে নিয়েও শুভেন্দুর আপত্তি রয়েছে বলে দল সূত্রে খবর। তবে ওই বৈঠকের পর মনে করা হচ্ছিল সব জট কেটে গিয়েছে। বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সৌগত রায় তেমনি কথা জানিয়েছিলেন।

বৈঠকের পরে সৌগত রায় বলেন, “উত্তর কলকাতায় ওই বৈঠক হয়েছে। সেখানে উপস্থিত ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রশান্ত কিশোর এবং আমি। খুব ভাল আলোচনা হয়েছে। খুব ভাল পরিবেশ ছিল। আমরা ইতিবাচক আলোচনা করেছি। শুভেন্দু দলে থাকছেন। দলের আরও ভালর জন্য আমরা একসঙ্গে কাজ করব।

এক প্রশ্নের জবাবে সৌগতবাবু জানান, তাঁকে নিয়ে যত কথা হচ্ছিল, তা শেষ হয়েছে বলে মনে করি। তাঁর দল ছেড়ে চলে যাওয়া এবং অন্য দলে যোগ দেওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই। শুভেন্দু নিজেও এসব কিছু জানাবেন না। পরিষ্কার করে দেবেন। বৈঠক ইতিবাচক হয়েছে কোন সমস্যা একদিনে মেটে না তিনি আশা করেছিলেন ধাপে ধাপে সব ঠিক হয়ে যাবে।

কিন্তু তার পরের দিনই শুভেন্দু বেঁকে বসেন। কেন বৈঠকের কথা প্রকাশ্যে এল, তা নিয়ে ঘনিষ্ঠ মহলে ক্ষোভ জানান। ফলে নতুন করে জল্পনা তৈরি হয়।

মনে করা হচ্ছিল এদিন সাংবাদিক বৈঠকে তিনি নিজের অবস্থান স্পষ্ট করবেন। তিনি দল ছাড়বেন কিনা, বিধায়ক পদ ছাড়বেন কিনা, সে ব্যাপারে জানাবেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে তা বাতিল করেন। ফলে তিনি কী করছেন, বা করতে চলেছেন, তার জন্য আরও কয়েকটা দিন অপেক্ষা করতে হবে।

এর মাঝে বিড়ম্বনা বাড়িয়েছে তৃণমূলের আরও কয়েকজন নেতার বক্তব্য। শনিবার রাজ্যের মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, তৃণমূলের অতীন ঘোষ কিছু মন্তব্য করেছেন। যা নিয়ে নতুন করে জলঘোলা তৈরি হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here