পেনশন হোল্ডাররা এখন শুধুমাত্র মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করেই লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে পারবেন, জানুন কীভাবে

1

পেনশন হোল্ডারদের জন্য সুখবর রয়েছে। এখন কেন্দ্রীয় মন্ত্রক নতুন সুবিধা নিয়ে হাজির। পেনশন হোল্ডারদের জীবন সার্টিফিকেট জমা দিতে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে না। সরকার অবসরপ্রাপ্ত এবং বয়স্ক নাগরিকদের অবসর জীবন সহজ করতে ফেস রেকগনিজেশন প্রযুক্তি চালু করেছে।

পেনশন হোল্ডাররা এখন শুধুমাত্র মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করেই লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে পারবেন। এই প্রযুক্তির সাহায্যে প্রায় 68 লক্ষ কেন্দ্রীয় সরকারি পেনশন হোল্ডাররা উপকৃত হবেন।

পেনশন হোল্ডাররা এখন শুধুমাত্র মোবাইল অ্যাপ ব্যবহার করেই লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে পারবেন, জানুন কীভাবে-

Read More-বড়দিনে বড় উপহার, ডিসেম্বরেই চালু হতে চলেছে সেক্টর ফাইভ–শিয়ালদহ মেট্রো

এই সুবিধা চালু করার সময়, কেন্দ্রীয় রাজ্য মন্ত্রী ডঃ জিতেন্দ্র সিং বলেন, ‘ফেস রেকগনিশন’ প্রযুক্তি তাঁদের সেই সুবিধাকে আরও বাড়িয়ে দেবে। বিষয়টিকে ‘ঐতিহাসিক পদক্ষেপ’ হিসেবে তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, শুধু কেন্দ্রীয় সরকারের ৬৮ লক্ষ পেনশন প্রাপকেরাই নন, রাজ্য সরকারগুলির কর্মচারী ছিলেন যাঁরা কিংবা ইপিএফও-র আওতায় রয়েছেন, তাঁদের জন্যও এই ব্যবস্থা থাকছে।’

এই সুবিধা প্রবীণ নাগরিকদের জন্য খুবই উপকারী কারণ তাদের জীবন শংসাপত্র দিতে ব্যাঙ্ক শাখায় যেতে হবে না। অনেক বয়স্ক পেনশন হোল্ডার আছেন যাদের বায়োমেট্রিক আইডির জন্য ব্যাঙ্কে গিয়ে আঙুলের ছাপ দিতে হয়। অনেক সময় এমনও হয় যে আঙুলের ছাপ সঠিকভাবে স্ক্যান করা যায় না, যার কারণে পেনশন বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। পেনশন এবং পেনশন কল্যাণ বিভাগ একটি টুইটের মাধ্যমে ফেস রেকগনিজেশন প্রযুক্তি সম্পর্কে জানিয়েছে। এই পুরো সিস্টেমটি তৈরি করা হয়েছে UIDAI সফটওয়্যারের ভিত্তিতে।

এই প্রযুক্তির মাধ্যমে, পেনশনহোল্ডাররা যেকোনো অ্যান্ড্রয়েড ভিত্তিক স্মার্টফোন থেকে জীবন সার্টিফিকেট জমা দিতে পারবেন। এই ব্যবস্থার সাহায্যে ডিজিটাল লাইফ সার্টিফিকেট অনলাইনে সেভ করা যাবে। যেকোনো পেনশন হোল্ডার বা পেনশন বিতরণকারী সংস্থা অনলাইনে জীবন শংসাপত্র দেখতে পারবে।

লাইফ সার্টিফিকেট জমা দিতে যা প্রয়োজন হবে

-অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন

-ইন্টারনেট সংযোগ

-পেনশন প্রদানকারী সংস্থায় আধারের সঙ্গে রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বর

-ক্যামেরা রেজোলিউশন 5MP বা তার বেশি হওয়া উচিত

যেভাবে জীবন সার্টিফিকেট জমা দিতে হয়

-Google Playstore-এ যান এবং AadhaarFaceID অ্যাপ ডাউনলোড করুন। এর জন্য আপনি https://play.google.com/store/apps/details?id=in.gov.uidai.facerd বা https://jeevanpramaan.gov.in/ ভিজিট করতে পারেন

-যাচাইকরণের জন্য প্রয়োজনীয় তথ্য লিখুন

-অপারেটর অথেনটিকেশন সম্পূর্ণ করুন এবং অপারেটরের মুখ স্ক্যান করুন। এখানে অপারেটর মানে পেনশনভোগী

-এখন আপনার মোবাইল ফোন লাইফ সার্টিফিকেট তৈরি করতে প্রস্তুত। এর ভিত্তিতে পেনশনহোল্ডারের যাচাই-বাছাইও করা হবে।

পেনশন হোল্ডারের তথ্য পূরণ করুন

-পেনশন হোল্ডারের একটি লাইভ ছবি তুলুন। একটি ভাল ছবি পেতে যথেষ্ট আলো থাকতে হবে যাতে মুখ ঝাপসা না হয়

-এখন সাবমিট বোতাম টিপুন

-আপনার রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে একটি বার্তা আসবে যেখানে লাইফ সার্টিফিকেট ডাউনলোড করার লিঙ্ক দেওয়া হবে।

জীবন প্রমান অ্যাপ বর্তমানে শুধুমাত্র ভারতে উপলব্ধ। অন্য কোনো দেশে এই সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না। পেনশন সময়মতো পেতে হলে, সঠিক তথ্য পূরণ করা প্রয়োজন।

Previous articleবড়দিনে বড় উপহার, ডিসেম্বরেই চালু হতে চলেছে সেক্টর ফাইভ–শিয়ালদহ মেট্রো
Next articleঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের মোকাবিলায় বিশেষ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here