ফের উত্তপ্ত বীরভূমের লাভপুর! বিজেপি-তৃণমূলের বিরুদ্ধে বোমাবাজি ও মারধরের অভিযোগ

0

ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল বীরভূমের লাভপুর। একদিকে বিধানসভা নির্বাচনের আবহ অন্যদিকে মণিরুল ইসলাম প্রকাশ্যে আসায় সরগরম রাজনীতির বাতাবরণ। এই পরিস্থিতিতে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর স্ত্রী ও মাকে মারধরের অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। গুরুতর জখম অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তাঁরা। অভিযুক্তের শাস্তির দাবিতে সরব তৃণমূল কংগ্রেস। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের লাভপুর থানার কল্যাণপুর গ্রামে। ঘটনার জেরে মাথা ফাটল তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর স্ত্রীর, আহত তাঁর মা।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বীরভূমের সাঁইথিয়া থানার অন্তর্গত কল্যাণপুর গ্রামের বাসিন্দা তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী রুস্তম শেখ। অভিযোগ, মঙ্গলবার গভীর রাতে তাঁর বাড়ির পাশে কেউ বোমা মজুত করে রাখে। বুধবার সকালে কয়েকজন বোমাগুলি নিয়ে যাচ্ছিল। এখানে রুস্তমের কোনও হাত ছিল না বলেই দাবি পরিবারের। বিষয়টি তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর স্ত্রী খাইরুন্নেসার নজরে পড়ে। তখন দুষ্কৃতীরা বেধড়ক মারধর করে খাইরুন্নেসাকে। তাঁর মাথা ফাটিয়ে দেয় দুষ্কৃতীরা। এমনকী তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীর মাকেও মারধর করা হয়। তাঁদের দু’জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় লাভপুর গ্রামীণ হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

এই ঘটনার পেছনে বিজেপির হাত রয়েছে বলে অভিযোগ তোলে তৃণমূল কংগ্রেস। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। বিজেপির স্থানীয় নেতা বিকাশ আচার্য বলেন, ‘‌এটা তৃণমূলের গোষ্ঠীদন্দের ফল। তারাই বোমা রাখছিল। এখানে বিজেপির কোনও হাত নেই। পাল্টা রুস্তম শেখের অভিযোগ, তিনি তৃণমূল কর্মী হওয়ায় বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাঁর বাড়ির পাশে বোমা রেখে দিয়েছিল। প্রতিবাদ করায় স্ত্রী এবং মাকে বাঁশ দিয়ে মারধর করা হয়েছে। মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here