বৃষ্টির দাপট কমতেই উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ডেঙ্গু, একাধিক রাজ্যে বিশেষ টিম পাঠাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক

0

বৃষ্টির দাপট কমতেই ডেঙ্গুর বাড়বাড়ন্ত। দেশের একাধিক জায়গাতে ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি নিয়েছে ডেঙ্গু। একদিকে এখনও করোনা পরিস্থিতি থেকে রেহাই মেলেনি দেশবাসীর। আর এর মধ্যেই ভয়ঙ্কর প্রকোপ নিয়েছে ডেঙ্গু। আর এভাবে ডেঙ্গু বাড়তে থাকায় উদ্বেগে কেন্দ্র। আর সেই উদ্বেগ থেকেই একাধিক রাজ্যে বিশেষ টিম পাঠাল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

কীভাবে ডেঙ্গুর সঙ্গে মোকাবিলা করা যাবে কার্যত ডেঙ্গু বিধ্বস্ত রাজ্যগুলিকে সেই পরামর্শ দেবেন কেন্দ্রীয় ওই টিম। দেশের একাধিক রাজ্যের পাশাপাশি বাংলাতেও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত বহু মানুষ।

জানা গিয়েছে, হরিয়ানা, পঞ্জাব, কেরালা, রাজস্থান, তামিলনাড়ু, উত্তর প্রদেশ, উত্তরাখন্ড, দিল্লি, জম্মু এবং কাশ্মীরে হঠাত করে ব্যাপক ভাবে ডেঙ্গুতে আকান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে। শুধু এই রাজ্যগুলিই নয়, একাধিক কেন্দ্রশাসিত জায়গাগুলিতেও ডেঙ্গুর প্রকোপ অস্বাভাবিক ভাবে বেড়ে গিয়েছে। প্রত্যেকদিনই কার্যত বহু মানুষ জ্বর নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। যা যথেষ্ট উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এই অবস্থায় দ্রুত এই সমস্ত রাজ্যগুলিতে কেন্দ্রীয় টিম পাঠাল কেন্দ্র।

সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলিকে এই টিম একদিকে ডেঙ্গু মোকাবিলাতে সাহায্য করবে আবার টেকনিক্যাল গাইডেন্সও দেবে। এছাড়াও হাতেহাত মিলিয়ে ডেঙ্গু মোকাবিলাতে কাজ করবে এই টিম। প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, কেন্দ্রীয় এই টিমের মধ্যে ডাক্তারদের পাশাপাশি National Centre for Disease Control এবং National Vector Borne Disease Control-এর বিশেষজ্ঞরাও রয়েছেন।

এই সমস্ত রাজ্যগুলিতে যেভাবে ডেঙ্গু বাড়ছে তাতে উদ্বিগ্ন খোদ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী মনসুখ মান্ডব্য। আর এরপরেই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিবকে বিষয়টি দেখার জন্যে নির্দেশ দেন। আর এরপরেই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক এই বিষয়ে নজ্র দেয়। আর দ্রুত এই নয়টি রাজ্য সহ কেন্দ্রশাসিত রাজ্যগুলিতে দ্রুত কেন্দ্রীয় টিম পাঠানোর নির্দেশ দেন। কেন এই সমস্ত রাজ্যে ডেঙ্গু এভাবে বাড়ছে তা দেখার জন্যেও নির্দেশ দেওয়া হয়। আর এরপরেই টিম বানিয়ে এই সমস্ত রাজ্যে পৌঁছেছে এই টিম।

উল্লেখ্য এই বছর দিল্লিতেই এখনও পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ১৫০০ এরও বেশী মানুষ। অক্টবরের ১২০০ মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়েছিলেন। যা কিনা গত চার বছরে সবথেকে বেশি। অন্যদিকে বাংলাতেও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন বহু মানুষ। তবে পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রনেই বলে দাবি রাজ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের। চিকিত্‍সকদের একাংশের মতে, জমা জলে তৈরি হয় ডেঙ্গুর মশা। ফলে জল জমতে না দেওয়াই ভালো। অন্যদিকে জ্বর হলেই ডাক্তারদের কাছে যাওয়ার পরামর্শ।

Previous articleরাত পোহালেই দীপাবলি, ১০ কুইন্টাল ফুলে সেজে উঠছে বদ্রীনাথ মন্দির
Next articleদীপাবলিতে দেশবাসীর জন্য সুখবর! সরষের তেল-সহ সব রকমের ভোজ্য তেলের দামে জোরদার পতন!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here