মুখোমুখি ভারত-চিন, অরুণাচলে লাল ফৌজের ২০০ জওয়ানকে ঠেকাল ভারতীয় সেনা

0

ফের সীমান্ত বিবাদে জড়াল ভারত ও চিনা সেনা। জানা গিয়েছে, গত সপ্তাহে অরুণাচল সেক্টরে এই ফেস-অফ হয়। সংবাদ সংস্থা এএনআইকে এই বিষয়ে জানান প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রের একটি সূত্র। উল্লেখ্য, অরুণাচলের সীমান্ত নিয়ে চিন এবং ভারতের মধ্যে বিবাদ রয়েছে। জানা গিয়েছে, এই ফেস-অফ বেশ কয়েক ঘণ্টা চলে। পরে প্রোটোকল অনুযায়ী এই বিবাদ মেটানো হয়। তবে এই সংঘর্ষে কোনও হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির খবর মেলেনি। জানা গিয়েছে, অরুণাচলপ্রদেশে প্রায় চিনা সেনার ২০০ জওয়ান প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় ভূখণ্ডের খুব কাছে এসে পড়ে। চিনা সেনাকে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের মাটিতে ঢুকতে বাধা দেয় ভারতীয় সেনা। জানা গিয়েছে, দুই দেশের সেনাবাহিনী মুখোমুখি হলেও সংঘর্ষ হয়নি। বরং আলোচনার মাধ্যমে মেটানো হয় বিবাদ।

মুখোমুখি ভারত-চিন, অরুণাচলে লাল ফৌজের ২০০ জওয়ানকে ঠেকাল ভারতীয় সেনা

Read More-Weather: আজ বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস রাজ্যের একাধিক জেলায়

এর আগে গতবছর সীমান্ত বিবাদের জেরে পূর্ব লাদাখে সংঘর্ষে জড়িয়েছিল ভারত ও চিন। সেই ঘটনায় ভারতীয় সেনার প্রায় ২০ জন সেনাকর্মী শহিদ হয়েছিলেন। চিনা সেনারও প্রায় ৪০ জনের হতাহত হওয়ার খবর মিলেছিল। সেই সংঘর্ষের পর থেকেই ভারত সংলগ্ন বিভিন্ন সীমান্ত সেক্টরে শক্তি বাড়িয়েছে চিন। লাদাখে সেনা প্রত্যাহারের কথা বলা হলেও বিভিন্ন ছুতোয় সেখানেও সেনা মোতায়েন বাড়িয়েছে চিন। সঙ্গে রয়েছে অত্যাধুনিক অস্ত্র সম্ভার।

Read More-ভূমিকম্পে কেঁপে উঠল উত্তরবঙ্গের একাধিক জেলা, আতঙ্কে রাস্তায় মানুষজন

কয়েকদিন আগে চিনা সেনা উত্তরাখণ্ডেও সীমান্ত পার করে ভারতীয় ভূখণ্ডে ঢুকে পড়েছিল বলে জানা যায়। পরে ভারতীয় সেনা সেই স্থানে যাওয়ার কিছু আগে অনু্প্রবেশকারী চিনা সেনা ভারতীয় ভূখণ্ড ত্যাগ করে। গত ৩০ অগস্ট এই ঘটনা ঘটেছিল।

এই আবহে উত্তরাখণ্ডে চিনা সেনার অনুপ্রবেশ বা অরুণাচলে দুই সেনার ফেস-অফের মতো ঘটনায় পরিস্থিতি আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। এদিকে কূটনৈতিক স্তরে বেজিং বরাবর লাদাখের সংঘর্ষের দায় ভারতের ঘাড়ে চাপাতে সচেষ্ট হয়েছে। যদিও ভারতও বিশ্বের সামনে সত্যটা তুলে ধরে চিনা আগ্রাসনের নিন্দা করেছে।

Previous articleWeather: আজ বজ্রবিদ্যুত্‍-সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস রাজ্যের একাধিক জেলায়
Next articleসুখবর! দুর্গাপুজো উপলক্ষে টানা ১৬ দিনের ছুটি পাবেন রাজ্যের সরকারি কর্মচারীরা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here