মুর্শিদাবাদের আক্রান্ত কর্মীর বাড়িতে অধীর চৌধুরী, কালো পতাকার সঙ্গে উঠল ‘গো ব্যাক’ স্লোগান

0

শুক্রবার সকালে মুর্শিদাবাদের আক্রান্ত কংগ্রেস কর্মীর বাড়িতে দেখা করতে যান দলের সভাপতি তথা পিএসি-র চেয়ারম্যান অধীর চৌধুরী। রানিনগর-২ ব্লকের গোধনপাড়া গ্রামে তৃণমূল কর্মীরা তাঁকে ঘিরে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দেয়। তাঁর গাড়িকে ঘিরে কয়েকশো কর্মী ঝাঁটা হাতেও বিক্ষোভ দেখান। ওঠে কালো পতাকাও। খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশ পৌঁছে যায় সেখানে। পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খেতে হয় তাঁদের।

মুর্শিদাবাদের আক্রান্ত বাড়িতে অধীর চৌধুরী, কালো পতাকার সঙ্গে উঠল ‘গো ব্যাক’ স্লোগান

Read more-বিশ্বভারতীর ক্যাম্পাসের ৫০ মিটারের মধ্যে কোনও বিক্ষোভ নয় : কলকাতা হাইকোর্ট

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার প্রায় ৫ ঘন্টা ধরে রানিনগর ২ ব্লকের কংগ্রেস নেতা ঝড়ু মন্ডলের বাড়িতে হামলা চালানো হয় বলে অভিযোগ। কাঠগড়ায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। শুক্রবার তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে হামলার মুখে পড়লেন অধীর চৌধুরী। বাঁশ, লাঠি নিয়ে তাঁর গাড়ি ভাঙচুরের চেষ্টা করে বলে অভিযোগ।

Read more-নির্দেশ না মানায় রাজ্য পুলিশের কার্যনির্বাহী DG মনোজ মালব্যকে তলব হাই কোর্টের

কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, ‘রাজ্যে শূন্য আসন আমরা মেনে নিয়েছি। খুশি হয়েছিলাম একটি সাম্প্রদায়িক শক্তিকে পরাজিত করে তৃণমূল আবারও ক্ষমতায় এসেছে। মমতা ব্যানার্জি এখন সমস্ত রাজনৈতিক দলের সমর্থকদের মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তৃতীয় বার ক্ষমতায় আসার পরও তৃণমূল সরকার সন্ত্রাসের রাজনীতি ছাড়তে পারেনি। রাজ্যে কংগ্রেস কর্মীরা আক্রান্ত হচ্ছে। আমাকে শয়ে শয়ে তৃণমূল কর্মী কালো পতাকা দেখিয়েছে। আমি রানিনগরে কাউকে শাস্তি দিতে আসিনি। এখানে বিবেকের তাড়নায় কিছু সাধারণ মানুষের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলাম।’

অন্যদিকে, এই অভিযোগ অস্বীকার করেন রানিনগর ২ ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি শাহ আলম সরকার। তিনি বলেন, ‘যে সমস্ত ব্যক্তিরা আক্রান্ত হয়েছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে তারা খুনের আসামি। কিছুদিন আগেই নিজেদের বাড়ি থেকে সমস্ত মালপত্র সরিয়ে নিয়েছে। এখন বাড়িতে হামলা চালানোর নাটক করছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here