রাজ্যসভায় চলতি বাদল অধিবেশন থেকে সাসপেন্ড তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন

0

সাসপেন্ড করা হল তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেন। রাজ্যসভায় চলতি বাদল অধিবেশনে আর থাকতে পারবেন না তৃণমূলের এই সাংসদ। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রযুক্ত মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণবের হাত থেকে বিবৃতি লেখা কাগজ ছিনিয়ে নিয়ে তা ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছিল তাঁর বিরুদ্ধে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বিবৃতি ছেঁড়ার ঘটনার প্রেক্ষিতেই এই কড়া পদক্ষেপ নেওয়া হল বলে জানা গিয়েছে। এই পদক্ষেপের পরই রাজ্যসভায় তৃণমূলের সাংসদরা সরব হন এবং নিন্দা করেন। এদিকে সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর তরফে জানা যায় যে সাসপেন্ড হয়েও রাজ্যসভায় বসেছিলেন শান্তনু সেন। তাঁকে রাজ্যসভা থেকে বেরিয়ে যেতে আবেদন করেন রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান।সোমবার থেকে শুরু হয়েছে সংসদের বাদল অধিবেশন। অধিবেশন শুরুর ঠিক আগের দিন রবিবার রাত থেকেই সংবাদের শিরোনামে চলে আসে পেগাসাস। এই আবহে আজও পেগাসাস নিয়ে উত্তাল সংসদ। এই নিয়ে বৃহস্পতিবার রাজ্যসভায় তৃণমূলের সাংসদ ডঃ শান্তনু সেনের বিরুদ্ধে মন্ত্রী অশ্বীনি বৈষ্ণবের বৃবৃতি ছেঁড়ার অভিযোগ ওঠে। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে রাজ্যসভার ২৫৬ নম্বর ধারা অনুযায়ী তৃণমূল সাংসদ শান্তনু সেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনে কেন্দ্র সরকার। প্রস্তাব পেশ করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভি মুরলীধরন। চলতি বাদল অধিবেশনে তৃণমূল সাংসদকে যাতে সাসপেন্ড করা হয়, সেই দাবি জানিয়ে শুক্রবার অভিযোগ জমা করে বিজেপি। সেই অভিযোগ মেনে নিয়ে বেঙ্কাইয়া নাইড়ু চলতি বাদল অধিবেশন থেকে সাসপেন্ড করা হয় শান্তনু সেনকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here