রাজ্যের সরকারি স্কুলগুলিকে ‘সেফ হোম’ করে তোলা হবে, সিদ্ধান্ত স্কুল শিক্ষা দফতরের

0

কোভিডের প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউয়ের মাঝে কিছু দিনের জন্য উঁচুক্লাসের পড়ুয়াদের জন্য খোলা হলেও, এখন ফের জটিল হয়েছে পরিস্থিতি। স্কুল সবই বন্ধ পড়ে রয়েছে। কবে সব ঠিক হবে, আবার স্বাভাবিক হবে পঠনপাঠন, তার কোনও ইঙ্গিত মেলেনি কোথাও। এই পরিস্থিতিতে সরকারি স্কুলগুলিকে কোভিড চিকিত্‍সার ‘সেফ হোম’ করে তোলা হবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দফতর। রাজ্যে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছুঁতে চলেছে প্রায় ২০ হাজার। মৃত্যুও হচ্ছে গড়ে প্রায় দেড়শো জনের। এই অবস্থায় হাসপাতালগুলিতে বেডের তীব্র সঙ্কট। বহু রোগীর প্রয়োজন সেফহোম, যেখানে বিশ্রাম, শুশ্রূষা ও প্রয়োজনে অক্সিজেন মিললেই হাসপাতালে না গিয়েই সুস্থ হতে পারেন তাঁরা। সেই সমস্যা মেটাতে রাজ্যের স্কুলগুলিকেই সেফ হোমে বদলে ফেলার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুল শিক্ষা দফতর। এ বিষয়ে জেলাশাসকদের চিঠিও দেওয়া হয়েছে। জানানো হয়েছে, স্কুলগুলি দ্রুত স্যানিটাইজ করে সেফ হোমের উপযুক্ত করে তুলতে হবে। দীর্ঘদিন ধরে ক্লাসরুমগুলো বন্ধ থাকায় সেখানে ধুলো-ময়লা জমেছে, আলো হাওয়া খেলেনি। এরকম অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ যাতে না থাকে, তা নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে জেলাশাসকদের। কোভিড পজিটিভ রোগীদের জন্য পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অতি আবশ্যক। স্যানিটাইজ করার পরে তার রিপোর্ট জরুরি ভিত্তিতে সরকারের কাছে পাঠাতে হবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা দফতর। সব ঠিক থাকলে, বিশেষজ্ঞরা সন্তুষ্ট হলে সেফহোম হিসেবে চালু হবে স্কুলগুলি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here