রোজ ভ্যালি কাণ্ডে প্রায় ২৭ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত ইডির

0

রোজ ভ্যালি কাণ্ডে ফের সক্রিয় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার ২৬ কোটি ৯৮ লক্ষ টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। জানা গিয়েছে, রোজ ভ্যালির মালিকানাধীন বিভিন্ন হোটেল, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং ডিমান্ড ড্রাফট বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। সব সম্পত্তি বাজেয়াপ্তকরা হয়েছে প্রিভেনশন অফ মানি লন্ডারিং অ্যাক্টের অধীনে।

রোজ ভ্যালি কাণ্ডে প্রায় ২৭ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত ইডির

Read More-আজ বিধানসভায় বিধায়ক হিসাবে শপথ নেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ ২ নব নির্বাচিত বিধায়ক

সম্প্রতি রোজ ভ্যালির কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডুর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বেশ কিছু তথ্য পায় ইডির তদন্তকারীরা। সেই সূত্র ধরেই রোজ ভ্যালির অধীনে থাকা বিভিন্ন হোটেল, বেশ কিছু ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং ডিমান্ড ড্রাফটের সন্ধান পায় ইডি।

বিগত সময়েও একাধিকবার বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল রোজ ভ্যালির বিভিন্ন সম্পত্তি। চলতি বছরের এপ্রিলেই রোজ ভ্যালির ৩০৪ কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছিল ইডি। এর আগেও গৌতম কুণ্ডুর বেশ কয়েকটি বাড়ি খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।প্রসঙ্গত, প্রায় ১৭ হাজার কোটির অর্থ তছরুপের অভিযোগ রয়েছে রোজ ভ্যালির বিরুদ্ধে। এর প্রেক্ষিতে রোজ ভ্যালির বিরুদ্ধে তদন্ত করছে সিবিআই এবং ইডি।

২০১৩ সালে রোজ ভ্যালি দুর্নীতি কাণ্ডের তদন্ত শুরু করে ইডি। ২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে রোজ ভ্যালি কাণ্ডের তদন্ত শুরু করে সিবিআই। তার পরেই ২০১৫ সালে রোজ ভ্যালির কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুকে এই তদন্তের প্রেক্ষিতে গ্রেফতার করেছিলেন কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আধিকারিকরা। হাজতে যেতে হয়েছে গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডুকেও। তৃণমূলের দুই সাংসদ তাপস পাল এবং সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কেও একসময় গ্রেফতার করা হয়েছিল এই মামলার প্রেক্ষিতে।

Previous articleআজ বিধানসভায় বিধায়ক হিসাবে শপথ নেবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সহ ২ নব নির্বাচিত বিধায়ক
Next articleNavratri 2021: নবরাত্রি উপলক্ষে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here