শেষ মুহূর্তে কালীঘাটে ভ্রাতৃবধূ কাজরীর হয়ে প্রচারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

0

গোয়া থেকে ফিরেই কলকাতা পুরভোটের জন্য প্রচার শুরু করেছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত বুধবার উত্তর ও মধ্য কলকাতার তৃণমূল প্রার্থীদের সমর্থনে ফুলবাগানে জনসভা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কলকাতায় জোড়া জনসভা করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

শেষ মুহূর্তে কালীঘাটে ভ্রাতৃবধূ কাজরীর হয়ে প্রচারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Read More-তৃণমূল ছাত্র পরিষদ–এসএফআই সংঘর্ষে রণক্ষেত্র উত্তরপাড়া কলেজ, মোতায়েন বিশাল পুলিশবাহিনী

তারপরেই একদম শেষ মুহূর্তে কালীঘাটে নিজের বাড়ির এলাকায় প্রচার করবেন তৃণমূল সুপ্রিমো। ভাই কার্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী কাজরী বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে প্রচার করতে দেখা যাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। ৭৩ নম্বর ওয়ার্ডে প্রাক্তন কাউন্সিলর রতন মালাকারের জায়গায় এবারের ভোটে প্রার্থী হয়েছেন ভ্রাতৃবধূ কাজরী বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর সমর্থনেই আসন্ন কলকাতা পুরভোটে প্রচার করতে দেখা যাবে মমতাকে।

পুরভোটের প্রচারে গিয়ে ফুলবাগানে দলের কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের বিশেষ বার্তা দেন তৃণমূল সুপ্রিমো। তিনি জানান, ‘আমার এলাকায় ঘর করবেন, এটা দিতে হবে, এ সব আর চলবে না। এলাকায় কে বাড়ি করবে, কাউন্সিলর ঠিক করবে না। যাঁরা আবেদন করছেন, খতিয়ে দেখে তাঁদের কাজ করে দাও। এর জন্য মুখ কেন দেখতে হবে? আমার কাছে কিছু এলে, খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নিই। আর কোনও জায়গায় বিপদ হলে কাউন্সিলর প্রথমে ছুটে যাবেন। যিনি এসব দেখতে পারবেন না, তিনি কাউন্সিলর হবেন না। এখন বাড়ির প্ল্যানের অনুমতি অনলাইনে হয়ে গেছে। আগামী দিনে যা দরকার, অনলাইনেই চাইবেন। সাত দিনে হবে, এটা আমি চাই। শিল্পক্ষেত্রেও এটা আমরা করতে যাচ্ছি।’

আগামী রবিবার কলকাতা পুরসভার ভোট। তার আগেই শুক্রবার অর্থাত্‍ আগামিকাল প্রচারের শেষদিন। তাই আগেভাগেই দলীয় প্রার্থীদের ভোকাল টনিক দিতে শেষবেলার প্রচারে নামছেন মমতা। আর কালীঘাট অর্থাত্‍ নিজের বাড়ির এলাকা দিয়েই শেষ করতে চাইছেন তৃণমূল সুপ্রিমো।

Previous articleতৃণমূল ছাত্র পরিষদ–এসএফআই সংঘর্ষে রণক্ষেত্র উত্তরপাড়া কলেজ, মোতায়েন বিশাল পুলিশবাহিনী
Next articleরাওয়াতের স্থানে CoSC-র চেয়ারম্যান হলেন জেনারেল নারাভানে, সিডিএসের দায়িত্বে কে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here