সিডনির রণভূমে যোদ্ধার মত লড়লেন অশ্বিন-বিহারি, দুর্দান্ত ড্র ভারতের

0

সিডনি: সিডনি গ্রাউন্ডে ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ার বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফির তৃতীয় টেস্ট ঐতিহাসিক ড্র হয়ে শেষ হলো। ভারতের দলের দাঁতে দাঁত চেপে লড়াই অস্ট্রেলিয়ের থেকে জয় ছিনিয়ে নিয়ে গেল। কিন্তু জয় হলো ক্রিকেটের। উল্লেখ্য শেষ দিনে ভারতের জয়ের আশা দেখা দিলেও পূজারা আর ঋষভ পান্থ আউট হওয়ার পর ভারতও জেতার আশা ছেড়ে দেয়। তখন বিহারি ও অশ্বিনীর লক্ষ্য হয় ম্যাচ ড্র করার। দীর্ঘক্ষণ ধরে ধরে খেলতে থাকে দুই ব্যাটসম্যান। শেষ পর্যন্ত বিভারি ১৬১ বলে ২৩ ও অশ্বিন ১২৮ বলে ৩৯ রান করে অপরাজিতা থাকে। টেস্ট ইতিহাসে সবথেকে বেশি ১৩১ ওভার চতুর্থ ইনিংস ব্যাট করে ম্যাচ বাঁচানোর নজির গড়ল ভারত।

প্রসঙ্গত দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া ভারতকে ৪০৭ রানের পাহাড় প্রমাণ টার্গেট সেট করে দেয়। সেই টার্গেট তাড়া করতে নেমে রোহিত শর্মা-শুভমান গিল ওপেনিং জুটি ৭১ রান তোলে। প্রথম ইনিংসে হাফ সেঞ্চুরি করা শুভমান গিল দ্বিতীয় ইনিংসে করলেন ৩১ রান। চতুর্থ দিনের শেষে ভারতের স্কোর হয়েছিল ৯৮/২। সমর্থকরা তাকিয়ে ছিল পূজারা ও রাহানের দিকে।

কিন্তু শেষদিনের খেলা শুরু হতেই রাহানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যায়। তারপর ঋষভ পান্থ ঝড়ের গতিতে রান তুলতে থাকে। পূজারা অন্যপ্রান্তে সুরক্ষিত রাখে। তখন ভারতের জয়ের আশা উজ্জ্বল হতে থাকে। কিন্তু নাথান লিয়নের বল তুলে মারতে গিয়ে প্যাট কামিন্সের হাতে ধরা পরে ঋষভ পান্থ। ১১৮ বলে ১২ টা চার ও ৩টে ছয় মেরে ৯৭ রানে শেষ হয় পান্থের ঝড় ইনিংস। পান্থ যাওয়ার কিছুক্ষণ পরই ৭৭ রানে ফিরে যায় পুজারা।

তারপর হনুমান বিভারি ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন মিলে শেষ পর্যন্ত খেলা চালিয়ে যায়। অস্ট্রেলিয়ার জয়ের সামনে সিংহহৃদয় লড়াই মেলে ধরলেন দুজনে না হারার মানসিকতা নিয়ে খেলতে নেমে কার্যত হারা বাজি মেরে গেল ভারত। তিনটি টেস্টের পর এই মুহুর্তে সিরিজের ফলাফল ১-১।

Previous articleএই ভারতীয় অঞ্চলগুলি নেপালের অন্তর্গত, নয়া দাবি নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি অলির
Next articleমঙ্গলবার উত্তরবঙ্গে পৌঁছোচ্ছে বহু প্রতীক্ষিত করোনা ভ্যাকসিন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here