‘স্কুল কলেজ খোলা থাকলে সরকারের খরচ, বার খোলা থাকে তবে তো সরকারের লাভ’: দিলীপ ঘোষ

0

কোভিড বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও ১৫ দিন বাড়িয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত বেশ কিছু ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ জারি থাকবে। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে আবার ছাড়ও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্নের এই সিদ্ধান্তকে এদিন তীব্র কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। কোভিড আবহে দীর্ঘ দিন ধরেই বন্ধ রয়েছে স্কুল কলেজ। সম্প্রতি মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা না হওয়ার কথাও ঘোষণা করা হয়েছে। আবার গতকাল মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন ৩০ জুন পর্যন্ত রেস্টুরেন্ট বার বেলা ১২টা থেকে খোলা রাখা যাবে রাত ৮টা পর্যন্ত। এই পরিপ্রেক্ষিতে এদিন দিলীপ ঘোষ বলেন, স্কুল কলেজ খোলা থাকলে সরকারের খরচ হয়। আর বার যদি খোলা থাকে তবে তো সরকারের লাভ। দলের নেতারা মস্তি করতে পারেন। তাই জন্যেই স্কুল কলেজ বন্ধ থাকলেও নির্দিষ্ট সময়ে বার খোলার অনুমতি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়েও মন্তব্য করেছেন দিলীপ ঘোষ। গতকাল রাজ্যের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি গিয়েছিলেন তাঁরা। দিলীপ ঘোষের বক্তব্য, ওঁরা নিজের মতো এসেছিলেন আবার নিজের মতোই চলে গেছেন। এতে দলের কোনও ক্ষতি নেই। দলের আদি নেতারা এখনও গেরুয়া উত্তরীয় ছাড়েননি বলেই দাবি রাজ্য সভাপতির। গতকাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যে অফিস কাছাড়ি খোলার অনুমতিও দিয়েছেন। তবে ২৫ শতাংশ কর্মী নিয়ে সরকারি অফিস এবং ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে বেসরকারি অফিস খোলা যাবে বলে জানিয়েছেন তিনি। যেহেতু এখনও গণপরিবহনে ছাড় দেওয়া হয়নি, তাই অফিস খুললে পরিবহনের ব্যবস্থাও কোম্পানিকেই করতে বলা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here