হিংসায় প্ররোচিত করার আশঙ্কায় ট্রাম্পের টুইটার অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে সাসপেন্ড করল টুইটার

0

মার্কিন ক্যাপিটলে নজিরবিহীন তাণ্ডবের পর পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এসেছে। কিন্তু এখনও ধিকিধিকি করে আগুন চলছে। সেই পরিস্থিতিতে আবারও হিংসায় উস্কানি দেওয়ার আশঙ্কায় চিরদিনের জন্য বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে টুইটার। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ট্রাম্পের প্রচারের অ্যাকাউন্ট। সেই সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্টের অ্যাকাউন্টেও কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছে টুইটার।

শুক্রবার (স্থানীয় সময়) টুইটারের তরফে জানানো হয়, ট্রাম্পের সাম্প্রতিক টুইট, সেই টুইটের বিষয়বস্তু এবং টুইটার ও টুইটারের বাইরে সেই টুইটগুলিকে কীভাবে দেখা হচ্ছে, তা নিয়ে বিস্তারিত পর্যবেক্ষণের পর চিরদিনের জন্য তাঁর অ্যাকাউন্ট (@realDonaldTrump) বন্ধ রাখা হচ্ছে। আগামিদিনে হিংসায় আরও উস্কানি দেওয়ার আশঙ্কায় অ্যাকাউন্ট বন্ধ রাখা হয়েছে বলে টুইটারের তরফে জানানো হয়েছে। মাইক্রো-ব্লগিং সাইটের তরফে জানানো হয়েছে, এই প্রথম এভাবে কোনও রাষ্ট্রপ্রধানের অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

সেই কড়া পদক্ষেপের পরই নিজের প্রচারের অ্যাকাউন্ট (@TeamTrump) এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট (@POTUS) অ্যাকাউন্ট থেকে টুইটারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘আমি দীর্ঘদিন ধরে যেটা বলে আসছি যে ক্রমশ বাকস্বাধীনতা খর্ব করছে। আর আমায় চুপ করিয়ে দিতে আজ রাতে ডেমোক্র্যাট এবং উগ্রপন্থা বাম মতাদর্শের লোকেদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে টুইটারের কর্মীরা আমরা অ্যাকাউন্ট সরিয়ে দিয়েছে।’ সবমিলিয়ে চারটি টুইটে রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমাদের চুপ করা যাবে না।’ সঙ্গে শীঘ্রই ‘বড়সড় ঘোষণা’ করা হবে বলেও জানিয়েছেন ট্রাম্প।সেই হুঁশিয়ারির মুখে অবশ্য পালটা কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে টুইটার। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে প্রচারের অ্যাকাউন্ট (@TeamTrump)। সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট (@POTUS) অ্যাকাউন্ট থেকে কয়েক মিনিটের মধ্যে ওই চারটি টুইটও সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে জানানো হয়েছে, @POTUS অ্যাকাউন্ট সচল রাখা হচ্ছে। কিন্তু তাতে সর্বক্ষণ নজর রাখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here