হুগলির মগরায় বন্ধ হয়ে গেল সুতো ও রাসায়নিক তৈরির কারখানা, কাজ হারালেন প্রায় চার হাজার শ্রমিক

0

অতিমারি পরিস্থিতির মধ্যে হুগলির মগরায় বন্ধ হয়ে গেল সুতো ও রাসায়নিক তৈরির একটি কারখানা। কাজ হারালেন প্রায় চার হাজার শ্রমিক। কর্তৃপক্ষের যুক্তি , বিপুল লোকসানের কারণেই সাময়িক ভাবে বন্ধ রাখা হচ্ছে কারখানা। যদিও পাকাপাকি ভাবে কাজ হারানোর আশঙ্কা করছেন শ্রমিকরা।

মঙ্গলবার কেশোরাম রেয়ন কারখানার শ্রমিকরা কাজে এসে দেখতে পান, সাসপেনশন অফ ওয়ার্কের নোটিস ঝুলছে গেটে ও দেওয়ালে।করোনা পরিস্থিতির কারণে আর্থিক সঙ্কট,বিক্রি না হওয়ায় উত্‍পাদিত মাল মজুত হয়ে থাকা, কয়লা এবং কাঁচামালের যোগান না থাকার কারণ দেখানো হয়েছে সাসপেনশানের নোটিশে।এদিন সকালের শিফ্টে কাজ করতে আসা শ্রমিকরা কারখানা গেটে নোটিস দেখতে পান।সূতো তৈরীর এই কারখানায় একটি কেমিক্যাল ইউনিটও রয়েছে।সেটিও বন্ধের নোটিস দেওয়া হয়েছে। করোনা আবহে মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন বিভিন্ন ক্ষেত্রে।জেলার জুটমিলগুলোর অবস্থাও ভালো না।ত্রিশ শতাংশ শ্রমিক নিয়ে মিল চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।কেশোরাম রেয়ন কারখানায় গত এক সপ্তাহ ধরে উত্‍পাদন বন্ধ ছিলো।কারখানা কর্তৃপক্ষের দাবি,করোনা আবহে পরিস্থিতি স্বাভাবিক না থাকায় উত্‍পাদিত পন্য গুদামে মজুত হয়ে পড়ে রয়েছে। কয়লা এবং অন্যান্য কাঁচামালেরও অভাব রয়েছে।তাই কোম্পানি আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে।যতদিন না পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়, ততদিন কারখানায় সাসপেনশান অফ ওয়ার্ক থাকবে বলে নোটিসে জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here