Tuesday, May 17, 2022
Homeজাতীয়২৩ জানুয়ারি নেতাজির জন্মদিনে জাতীয় ছুটি ঘোষণার দাবি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

২৩ জানুয়ারি নেতাজির জন্মদিনে জাতীয় ছুটি ঘোষণার দাবি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আজ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী। বীর স্বাধীনতা সংগ্রামীকে তাঁর জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। টুইট করে নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

২৩ জানুয়ারি নেতাজির জন্মদিনে জাতীয় ছুটি ঘোষণার দাবি জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Read More-আজ নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর 125 তম জন্মজয়ন্তী, শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর

আজ নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর (Netaji Subhas Chandra Bose) ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী।দেশজুড়ে পালিত হচ্ছে এই দিনটি। বীর স্বাধীনতা সংগ্রামীকে তাঁর জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানানো হচ্ছে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। টুইট করে নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। পাশাপাশি টুইটারেই নেতাজির জন্মদিবসকে জাতীয় ছুটির (National Holiday) দিন হিসেবে ঘোষণা করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে (Central Government) অনুরোধ করেছেন তিনি।

টুইটারে (Twitter) নেতাজির একটি মূর্তির ছবি পোস্ট করেন মোদী। সেখানে তিনি লেখেন, “দেশবাসীকে পরাক্রম দিবসের অনেক শুভেচ্ছা। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে তাঁর ১২৫ তম জন্মবার্ষিকীতে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। আমাদের দেশের জন্য তাঁর যে অবদান রয়েছে তা প্রত্যেক ভারতীয়ের কাছেই গর্বের বিষয়।”

এদিকে নেতাজিকে নিয়ে আজ সকালে একাধিক টুইট করেন মমতা। তিনি লেখেন, “নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু একজন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক নায়ক। বাংলা থেকে নেতাজির উত্থান ভারতীয় ইতিহাসে অতুলনীয়। তিনি দেশপ্রেম, সাহসিকতা, নেতৃত্ব, ঐক্য ও সৌভ্রাতৃত্বের প্রতীক। নেতাজি সমস্ত প্রজন্মের অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবেন।”

আজ রাজ্যে এই দিনটি দেশনায়ক দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। এছাড়া টুইটের মাধ্যমে রাজ্যে জয়হিন্দ বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি করার কথা জানিয়েছেন মমতা। পাশাপাশি বেঙ্গল প্ল্যানিং কমিশন গঠন করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। মমতা লেখেন, “পশ্চিমবঙ্গ সরকার প্রোটোকল অনুসরণ করে যথাযোগ্য মর্যাদায় তাঁর জন্মদিনটিকে দেশনায়ক দিবস হিসেবে পালন করছে। নেতাজির স্মরণে কিছু দীর্ঘমেয়াদী উদ্যোগের মধ্যে, রাজ্যের টাকায় আন্তর্জাতিক সহযোগিতায় জয় হিন্দ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় তৈরি হচ্ছে। জাতীয় পরিকল্পনা কমিশন সংক্রান্ত নেতাজির চিন্তাধারা থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে, পরিকল্পনা উদ্যোগে রাজ্যকে সহযোগিতার জন্য বেঙ্গল প্ল্যানিং কমিশন গঠন করা হবে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments