‘‌ক্ষমতায় এলে ১ বছরের মধ্যে সুন্দরবনকে জেলা ঘোষণা করে তৈরি হবে এইমস’, গোসাবার জনসভায় অমিত শাহ

0

গঙ্গাসাগরে গিয়ে বলেছিলেন, পৃথক পর্যটন কেন্দ্র করবেন। আর গোসাবায় এসে বললেন, ক্ষমতায় এলে সুন্দরবনকে আলাদা জেলা করবেন। গোসাবার নির্বাচনী জনসভায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নিশানা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারকে। তাঁর অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী মোদীর পাঠানো সাহায্য জনসাধারণ পর্যন্ত পৌঁছতে দেয়নি তৃণমূল কংগ্রেস সরকার। আর তাঁর হুঙ্কার, ‘‌আমফানের ১০ হাজার কোটি টাকা কোথায় গেল? সব টাকা খেয়েছে ভাইপো কোম্পানি। ক্ষমতায় এসে প্রথমেই সিট গঠন করে অপরাধীদের জেলে ঢোকাব।’‌

সুন্দরবনকে আলাদা জেলা হিসেবে ঘোষণা করেছেন অমিত শাহ। তিনি বলেন, ‘‌বিজেপি ক্ষমতায় এলে সুন্দরবনকে আলাদা জেলা করা হবে। সারা বিশ্বের পর্যটকদের আকর্ষণ করতে সুন্দরবনের উন্নয়ন হবে। মৎস্যজীবীদের ৩ লক্ষ টাকার বিমা দেওয়া হবে। ব্যাঘ্র সংরক্ষণ কেন্দ্র তৈরি করা হবে। ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ, বাথরুম, গ্যাস পৌঁছনোর ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু দিদি ২৮২ প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তার মধ্যে ৮২টাও পূরণ করেননি। দিদি জবাব দিন। জবাব তো উনি দিতে পারবেন না। তাই আপনার ভোট বাক্সে তার জবাব দিয়ে দেবেন।’‌

গোসাবার মঞ্চ থেকে সুন্দরবনের মন জিততে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘‌ক্ষমতায় এলে ১ বছরের মধ্যে সুন্দরবনকে জেলা ঘোষণা করে তৈরি হবে এইমস। চিকিৎসার জন্য আর কলকাতায় ছুটতে হবে না। মৎস্যজীবীদের এবং সুন্দরবনের উন্নয়নের জন্য সুন্দরবন ডেভেলপমেন্ট বোর্ড তৈরি করা হবে। বাঘ সংরক্ষণেও আলাদা উদ্যোগ নেওয়া হবে। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু যে বাংলায় ইংরেজদের পিছু হঠতে বাধ্য করেছিলেন, সেই বাংলা আজ তোলাবাজির বাংলায় পরিণত হয়েছে। এই গোসাবা বিধানসভা কলকাতার কাছাকাছি হলেও এখনও সেভাবে উন্নয়ন হয়নি।’‌ উল্লেখ্য, গোসাবার পর সেখান থেকে উড়ে যাবেন পশ্চিম মেদিনীপুর। মেদিনীপুর শহরের কেরানিতলা মোড় থেকে বটতলা মোড়ে গোলকুঁয়ার চক পর্যন্ত রোড–শো করবেন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here