Friday, January 27, 2023
Homeঅনান্যTriphala Light সরানো হচ্ছে কলকাতার ত্রিফলা বাতিস্তম্ভ।

Triphala Light সরানো হচ্ছে কলকাতার ত্রিফলা বাতিস্তম্ভ।

Today Kolkata:- Triphala Light তিলোত্তমা নগরীর সৌন্দর্যায়নে এবার বসানো হবে একফলা বাতিস্তম্ভ। পথচলা শেষ হচ্ছে কলকাতার ত্রিফলা বাতিস্তম্ভের। শুরু থেকেই এই বাতিস্তম্ভ নিয়ে একরাশ অভিযোগ ছিল বিরোধীদের। শহরের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিদ্যুৎ চুরি, বাতিস্তম্ভের ঢাকনা চুরির মতো একাধিক অভিযোগ উঠে আসছিল। অবশেষে সেই বিতর্ককে সঙ্গী করেই ত্রিফলা বাতিস্তম্ভের যাত্রা শেষ করে এক স্তম্ভে সেজে উঠতে চলেছে কলকাতা মহানগরী। কলকাতা কর্পোরেশন সূত্রে জানা গিয়েছে, দ্রুত অকেজো ত্রিফলা বাতিস্তম্ভগুলি সরিয়ে দেওয়া সবে। বসানো হবে এক স্তম্ভের আধুনিক আলো। মঙ্গলবার এই বিষয়ে বৈঠকে মেয়র পারিষদ (আলো) সন্দীপরঞ্জন বক্সী বলেন, ওই ত্রিফলা বাতিস্তম্ভগুলি খারাপ হলে আর নতুন করে তা সারানো হবে না। বদলে এবার এক ফলা বাতিতে সাজবে শহর কলকাতা।

পুরসভা সূত্রে জানা যায়, মূলত শহরকে সাজাতে ২০১২ সালে প্রায় ১২ হাজার ত্রিফলা বাতিস্তম্ভ বসানোর সিদ্ধান্ত নেয় তৎকালীন কলকাতা কর্পোরেশন। ২০১৪ সালে ত্রিফলা বাতি লাগানোর প্রক্রিয়া শেষ হয়। সেই সময় খরচ হয়েছিল প্রায় ২৭ কোটি টাকা। দরপত্র ছাড়াই অনেক বেশি দামে ওই ত্রিফলা বাতিস্তম্ভগুলি কেনার অভিযোগ করেন বিরোধীরা। কর্পোরেশনের নিজস্ব অডিটে অনিয়ম ধরা পড়তেই পদক্ষেপ করে প্রশাসন। কর্পোরেশনের তৎকালীন ডিজি-কে সরানোর পর শুরু হয় বিভাগীয় তদন্ত। এক ইঞ্জিনিয়ারের কথায়, ‘‘ত্রিফলা বাতিস্তম্ভের ঢাকনা ও বাতি চুরির অভিযোগ থামছিল না। পুলিশে অভিযোগ করেও কোনও কাজই হচ্ছিল না। এমনকী, বিদ্যুৎস্পৃষ্টের ঘটনাও ঘটেছিল।’ দুর্ঘটনা এড়াতে বর্ষার চার মাস ত্রিফলা বাতিস্তম্ভ বন্ধ রাখা হয়েছিল। কন্ট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেলের (CAG) রিপোর্টে চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে আসে।

Triphala Light সরানো হচ্ছে কলকাতার ত্রিফলা বাতিস্তম্ভ।

Local Train accident শিয়ালদহ স্টেশনের কাছে দুই লোকালের সংঘর্ষ, রক্ষা পেলেন যাত্রীরা।

জানা যায়, ওই বাতিস্তম্ভগুলি বসানোর নামে খরচ হয়েছে বাড়তি প্রায় আট কোটি টাকা। যদিও সেই বিতর্কের পরে কলকাতায় আর নতুন করে ত্রিফলা বাতিস্তম্ভ লাগানো হয়নি বলেই জানা যায়। কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, “নতুন ধরনের এই বাতিতে শহর সাজবে। ত্রিফলার থেকে অনেক নিরাপদ এই এক ফলা বাতি।” জানা গিয়েছে, কলকাতা পুরসভার প্রায় সমস্ত ওয়ার্ডে এই ত্রিফলা বাতি লাগানো হয়েছিল। শুরুটা হয়েছিল হরিশ মুখার্জি রোডে। কালীঘাটের হরিশ মুখার্জী রোড এবং সদানন্দ রোডে ইতিমধ্যেই তিন বাতিল ত্রিফলা ছেড়ে বসছে এক ফলা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

- Advertisment -

Recent Comments