করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়ছে , এবার প্ল্যাটফর্ম টিকিট বিক্রি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় রেল,

0

যে হারে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়ছে, তা উদ্বেগজনক। সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রে। এই অবস্থায় এবার প্ল্যাটফর্ম টিকিট বিক্রি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল ভারতীয় রেল। রেলের তরফে জানানো হয়েছে মহারাষ্ট্রের বেশ কিছু স্টেশনে মিলবে না প্ল্যাটফর্ম টিকিট।

শুক্রবার থেকেই প্ল্যাটফর্ম টিকিট বিক্রি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত কার্যকর হতে চলেছে। যে স্টেশনগুলিতে প্ল্যাটফর্ম টিকিট পাওয়া যাবে না, সেগুলি হল মহারাষ্ট্রের লোকমান্য তিলক টার্মিনাস, কল্যাণ, দাদর, থানে, পানভেল ও ছত্রপতি শিবাজি মহারাজ টার্মিনাস।

সেন্ট্রাল রেলওয়ের সিপিআরও সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানান প্ল্যাটফর্ম টিকিট বিক্রি বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে নির্দিষ্ট কিছু স্টেশনে। শুক্রবার থেকেই এই স্টেশনগুলিতে প্ল্যাটফর্ম টিকিট পাওয়া যাবে না। স্টেশনে অতিরিক্ত ভিড় এড়াতেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছেন তিনি।

দেশের মধ্যে মধ্যে মহারাষ্ট্রে করোনা সংক্রমণ সর্বাধিক হয়ে দেখা দিয়েছে। করোনার বিস্তার রোধে উদ্ধব ঠাকরের সরকার একাধিক পদক্ষেপও নিয়েছে, কিন্তু হাসপাতালগুলিতে বেড না থাকায় বড়সড় সমস্যার মধ্যে লড়াই করছে মহারাষ্ট্র। গত ১৫ দিনে মহারাষ্ট্রে সংক্রমণ রীতিমতো লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। বর্তমানে পুনের হাসপাতালে ১২০ টি বেড নিয়ে চিকিত্‍সা চলেছে ১৫৫ জনের। এই ১২০ টির মধ্যে ২৫ টি আইসিইউ এবং ১১ টি ভেন্টিলেটর বেড রয়েছে।

গত ১৫ দিনে পুণেতে প্রতিদিন প্রায় ৪ হাজার মানুষ করোনা পজিটিভ হিসেবে চিহ্নিত করা হচ্ছে। এছাড়া গড়ে এ শহরে প্রায় ২৫ জনের বেশি জনের মৃত্যু হচ্ছে বলে খবর রয়েছে। এর আগে, রেলের তরফ থেকে নয়া বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এতদিন প্লাটফর্মে ১০ টাকার টিকিট থাকায় পরিবারের সদস্যদের স্টেশনে ছাড়তে আসতেন অনেকেই। কিন্তু এখন প্ল্যাটফর্মে প্রবেশ করতে হলে ৩০ টাকার টিকিট কাটতে হবে।

রেলের ভাড়া বৃদ্ধির ফলে সাধারণ ভাবেই বিরাট অংশের জনগণের পকেটে বড় কোপ পড়তে চলেছে। আগে যে দূরত্ব যেতে মাত্র ১০ টাকা খরচ হত, তাতে এখন বেড়ে দাঁড়াল ৩০ টাকা, ফলে এই আগুন দ্রব্যমূল্যের বাজারে শিরে সংক্রান্তি আমজনতার।

দাম বৃদ্ধির জেরে মারাত্মক খারাপ অবস্থায় পড়েছে মধ্যবিত্ত। বাজারে আগুন দাম, হেঁসেলে সিলিন্ডারের অগ্নিমূল্য, পেট্রোল-ডিজেলের আকাশছোঁয়া মূল্যবৃদ্ধির মধ্যে এবার ট্রেনের টিকিটেরও ভাড়া বৃদ্ধি। সব মিলিয়ে ছেড়ে দে মা, কেঁদে বাঁচি অবস্থা। উল্লেখ্য, গত মাসেই রেল সিদ্ধান্ত নেয় স্বল্প দূরত্বের যাত্রীবাহী ট্রেনের টিকিটের দাম বাড়ানো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here