ভোটমুখী বাংলায় তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত বারাসাত

0

ভোটমুখী বাংলায় তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তেজনা ছড়াল বারাসাতে। ভোটের নির্ঘন্ট ঘোষণার পর থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ছে যুযুধান দুই প্রতিপক্ষ তৃণমূল এবং বিজেপি। বারাসাতে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে শঙ্কর চ্যাটার্জির নাম ঘোষণা হতেই এলাকায় বিজেপি কর্মীদের উপর চড়াও হয় একদল দুষ্কৃতী। স্থানীয় বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী দল আচমকাই এসে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে মারধর শুরু করে তাঁদের। চার নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর শিল্পী দাসের স্বামী বিশ্বজিত্‍ দাস ও তাঁর দলবল এই হামলার ঘটনায় নেতৃত্ব দেন। মারধরের পাশাপাশি তাঁদের বাড়িতেও ঢুকে ভাঙচুর চালায় এবং পরিবারের লোকজনদেরও মারধর করা হয়। বারাসাত পুরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের শালবাগান মোড়ের এই ঘটনায় এলাকায় তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। সংঘর্ষের ঘটনায় বিজেপির বারাসাত পশ্চিম মণ্ডলের কোষাধ্যক্ষ রনিত মণ্ডল গুরুতর আঘাত পান। রনিত মণ্ডলের আঘাত গুরুতর হওয়ায় স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের তত্‍পরতায় তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্থানীয়রা পুলিশে খবর দিলে ঘটনাস্থলে বারাসাত থানার বিশাল পুলিশবাহিনী এসে উপস্থিত হলে বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা ক্ষোভে ফেটে পড়েন। দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবিতে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। এলকায় শান্তি বজায় রাখতে দফায় দফায় রুট মার্চ করছে র‌্যাফ। আপাতত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনও গোটা এলাকা থমথমে হয়ে রয়েছে।

বিজেপি প্রার্থী শঙ্কর চ্যাটার্জি ঘটনার খবর পেয়েই এলাকায় যান এবং আক্রান্ত পরিবারগুলির পাশে থাকার বার্তা দেন। এর পাশাপাশি তৃণমূলের বিরুদ্ধে কড়া ভাষায় আক্রমণ শানান তিনি। ভোটের লড়াইয়ে রাজনৈতিকভাবে লড়াই করতে না পেরে এখন হামলার পথ বেছে নিচ্ছে তৃণমূল বলেই মত বিজেপি নেতৃত্বের। বারাসাতের বিভিন্ন এলাকায় বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে মাঝেমাঝেই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ছে তৃণমূল কর্মীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here