Friday, January 27, 2023
HomeখবরMamata Banerjee কেন শীতবস্ত্র বিডিও অফিসে?' ভাষণ থামিয়ে মঞ্চে বসে রইলেন ক্ষুব্ধ...

Mamata Banerjee কেন শীতবস্ত্র বিডিও অফিসে?’ ভাষণ থামিয়ে মঞ্চে বসে রইলেন ক্ষুব্ধ মমতা।

Today Kolkata:- ‘যতক্ষণ না পর্যন্ত শীতবস্ত্র আনা হচ্ছে ততক্ষণ আমি মঞ্চে বসে থাকব“। মঙ্গলবার হিঙ্গলগঞ্জের সভা থেকেই প্রশাসনিক আধিকারিকদের তীব্র ভর্ৎসনা করেন রণংদেহি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।
শীতকালে অঞ্চলের মানুষদের ১৫ হাজার শীতবস্ত্র হিঙ্গলগঞ্জে নিয়ে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন সরকারি অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার পরে মুখ্যমন্ত্রী সেই শীতবস্ত্র দেওয়ার উদ্যোগ নেন। সেই সময় আধিকারিকরা জানান, তাঁর আনা শীতবস্ত্র পড়ে রয়েছে বিডিও অফিসে। একথা শোনা মাত্রই তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন মমতা। রেগে গিয়ে সভায় অন্তত ২০ মিনিট ভাষণ বন্ধ রেখে মঞ্চে বসে থাকেন তিনি। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, মমতার এই রণমূর্তি রূপ পরিচিত নয় খুব একটা। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি আজ আসব বলে ১৫ হাজার শীতবস্ত্র কিনে এনেছি। এগুলো কেন বিডিও অফিসে থাকবে? বলুন বিডিওকে নিয়ে আসতে।

ডিসেম্বরের শুরুতেই দিল্লি সফরে মুখ্যমন্ত্রী , যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রীর ডাকা বৈঠকে

যতক্ষণ এটা না আসছে, আমিও বসে থাকব।” ক্ষোভের সঙ্গে তিনি এও বলেন, “পুলিশ একটা অন্যায় করলে দোষটা পরে আমাদের ঘাড়ে। সরকার একটা অন্যায় করলে দোষ হয় আমার। অথচ, আমি কিছুই জানি না।” মুখ্যমন্ত্রীর ক্ষুব্ধ মূর্তি দেখে তখনই ছোটেন সরকারি আধিকারিকরা।প্রায় ২০ মিনিট পরে শীতবস্ত্র এসে পৌঁছালে ফের বক্তব্য শুরু করেন মমতা। এদিন হিঙ্গলগঞ্জে গিয়ে পূর্বপরিকল্পনা মতোই মিষ্টি, শাড়ি, ধুতি নিয়ে তিনি পুজো দেন বনবিবির মন্দিরে। কিন্তু বিপত্তি ঘটে মঞ্চে উঠেই। কথা ছিল অনুষ্ঠান মঞ্চ থেকে শীতবস্ত্র বিতরণ করবেন তিনি। কিন্তু বক্তব্যের মাঝে শীতবস্ত্র দেখতে না পেয়েই মুখ্যসচিব, জেলাশাসক-সহ অন্যান্য উচ্চপদস্থ আধিকারিকদের ডেকে ভর্ৎসনা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

Mamata Banerjee কেন শীতবস্ত্র বিডিও অফিসে?’ ভাষণ থামিয়ে মঞ্চে বসে রইলেন ক্ষুব্ধ মমতা।

MORE NEWS – ফের জামিনের আবেদন খারিজ পার্থ-সহ সাতজনের।

ফের পার্থ, সুবীরেশদের জামিনের আবেদন খারিজ হল আদালতে। আরও ১৪ দিন জেলেই থাকতে হবে তাঁদের। মামলার পরের শুনানি হবে ১২ ডিসেম্বর। নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়-সহ ৭ জন জামিনের আবেদন করেন। এর বিরোধিতা করে সিবিআই। এদিন প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীর আইনজীবী সওয়াল করেন, তাঁর মক্কেলের নাম নিয়োগ দুর্নীতি মামলার এফআইআরে নেই, তাই তাঁকে জামিন দেওয়া হোক। উল্লেখ্য, গত ২২ জুলাই পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করে ইডি। পরবর্তীকালে জেল হেফাজতে থাকাকালীন সিবিআই তাঁকে ‘শোন অ্যারেস্ট’ করে। CONTINUE READING

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

- Advertisment -

Recent Comments