আগামী বছর মার্চের মধ্যে মোট ৩২,০০০ শিক্ষক নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতার

0

তৃতীয় দফায় ক্ষমতায় এসেই শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে উদ্যোগ নিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হল, এবার পুজোর আগে ২৪,৫০০ শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। সেইসঙ্গে পুজোর পরে ৭,৫০০ জনের হাতে প্রাথমিক শিক্ষকের নিয়োগপত্র দেওয়া হবে। আগামী বছর মার্চের মধ্যে সেই প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে বলে জানানো হয়েছে।সোমবার নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী জানান, পুজোর আগেই ১৪,০০০ জন উচ্চ-প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। ১০,৫০০ প্রাথমিক শিক্ষককেও পুজোর আগেই নেওয়া হবে। পুজোর আগেই তাঁরা চাকরি পাবেন। আগামী বছর মার্চের মধ্যে প্রাথমিক স্কুলে আরও ৭,৫০০ শিক্ষক চাকরি পাবেন। অর্থাৎ পুজোর আগে ২৪,৫০০ শিক্ষক নিয়োগ করা হবে। আর আগামী বছর মার্চের মধ্যে মোট ৩২,০০০ শিক্ষক নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার।

দিনকয়েক আগেই স্কুল সার্ভিস কমিশনের তরফে জানানো হয়েছিল, সোমবার (২১ জুন) আপার প্রাইমারি বা উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়ার ইন্টারভিউয়ের তালিকা প্রকাশ করা হবে। বিকেলে তালিকা প্রকাশের আগেই মুখ্যমন্ত্রী জানিয়ে দিলেন, পুজোর আগেই উচ্চ প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের প্রক্রিয়া সেরে ফেলবে রাজ্য সরকার। প্রাথমিক শিক্ষকদেরও নিয়োগ করার কথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

তিনি দাবি করেন, মামলা চলার কারণে এতদিন নিয়োগ প্রক্রিয়া আটকে ছিল। সেইসঙ্গে কড়া বার্তা দেন যে শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রে কোনও লবিবাজি চলবে না। তিনি বলেন, ‘তাঁদের (শিক্ষকদের) মেধাই, তাঁদের পরিচয়। এ নিয়ে কারও কাছে লবি করার কোনও প্রয়োজন নেই। তাঁদের মেধাই তাঁদের সবথেকে পরিচয়। যাঁরা পরীক্ষা দিয়েছেন, পরীক্ষায় পাশ করেছেন, পাওয়ার অধিকারী, কোর্টে কেস চলছিল বলে এতদিন আটকে ছিল।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here